Thursday, 25 January 2018

উপনির্বাচনের আগেই বিজেপিতে বড়সড় ভাঙন ধরালেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়

        ওয়েব ডেস্ক,২৫এজানুয়ারী :- মুকুল রায় এসেছিলেন তৃণমূলে ভাঙন ধরাতে কিন্তু বিজেপির মুকুল বিরোধীরা গেলেন তৃণমূলে। তৃণমূলের বদলে বিজেপিতে বড় ফাটল দেখা দিল।দিল্লির বিজেপি নেতারা মুকুল রায়কে বঙ্গ বিজেপিতে আনার পর ,বঙ্গ বিজেপির অন্দরে ক্ষোভ ক্রমশ বাড়ছিল। সেই ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশ আজ বিজেপির ভাঙ্গনের রূপ নিলো।
              বিশ্বস্ত সূত্রে পাওয়া খবর অনুযায়ী আজ দুপুর দেড়টায় নোয়াপাড়ায় ,বিজেপির সদ্য প্রাক্তন মহিলা কমিটির ভাইস প্রেসিডেন্ট আলোরাণী সরকারের নেতৃত্বে ১২জন বরিষ্ঠ নেতা এবং দেড়হাজার জন সক্রিয় বিজেপি কর্মীর হাতে তৃণমূলের পতাকা তুলে দেবেন যুব তৃণমূল সভাপতি তথা তৃণমূলের বর্তমান সেকেন্ড ইন কমান্ড অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় ।
              ব্যারাকপুর কাঁচড়াপাড়া এলাকায় তখন  বিজেপির চিহ্ন মাত্র ছিলোনা। ২০১২ সাল থেকে আলোরানী সরকারের নেতৃত্বে বিজেপির সংগঠন বৃদ্ধি পায়। গত নির্বাচনে মুকুল রায়ের পুত্র শুভ্রাংশু রায়ের বিরুদ্ধে প্রার্থী ছিলেন আলোরাণী দেবী। সে সময় তাকে বার বার আক্রান্ত হতে হয়। এসব আক্রমন মুকুল রায়ের আঙ্গুলি হেলনেই হয়েছিল বলে আলোরাণী দেবী মনে করেন।
               এপ্রসঙ্গে তাঁর সঙ্গে আমাদের প্রতিনিধি যোগাযোগ করলে তিনি বলেন-'' বীজপুরে মুকুল রায়ের দুর্নীতি,অত্যাচারের বিরোধিতা করার জন্যই আমি গৃহ বধূর জীবন ছেড়ে রাজনীতিতে আসি। সেই মুকুল রায়কেই এখন বিজেপি কাছে টেনে নিয়েছে। আমি কাঁচরাপাড়া ,হালিশহরের মানুষের কাছে কি মুখ নিয়ে গিয়ে বলবো যে -মুকুল এখন সাধু হয়ে  গেছেন ! মুকুল রায়ের অন্যায়ের বিরোধিতা করার জন্যই আমি তৃণমূলে যোগদান করছি।"
                     সামনে নোয়াপাড়ার নির্বাচন। অনেক বুথে হয়তো বিজেপি এজেন্ট ও বসাতে পারবেনা।রাজনৈতিক মহলের মতে এই সময় বিজেপিতে  ভাঙনে বঙ্গ বিজেপি ব্যাক ফুটে। আলোরানী দেবী তৃণমূলে আসায় স্বাভাবিক ভাবেই তৃণমূলের কর্মীরা উচ্ছসিত।
         আগামী ২৬এ জানুয়ারি বীজপুরে আলোরানী দেবীর নেতৃত্বে তৃণমূলের মিছিলের বের হওয়ার সম্ভাবনা আছে।

No comments:

Post a Comment

loading...