Tuesday, 16 January 2018

হাজযাত্রার ভর্তুকির টাকা এবার খরচ হবে সংখ্যালঘু উন্নয়নের খাতে,বাম তৃণমূলের বিরোধিতা

  ওয়েব ডেস্ক, ১৬ই জানুয়ারী :-  হজ যাত্রায় ভর্তুকি পুরো পুরি তুলে দেওয়ার সির্ধান্ত নিলো কেন্দ্র। কেন্দ্রীয় সংখ্যালঘু মন্ত্রী মুখতার আব্বাস নাকভি বলেছেন, তোষণ ছাড়াই সংখ্যালঘুদের উন্নয়ন করতে চায় কেন্দ্র। স্বাধীনতার পর থেকে এই হজযাত্রার জন্য ইসলাম ধর্মালম্বীদের ভর্তুকি দিত কেন্দ্রীয় সরকার। মোদি জমানায় সেই ভর্তুকিতে ইতি পড়ল।প্রতিবছর হজ যাত্রায় ৭০০ কোটি টাকা ভর্তুকি দেয় কেন্দ্র। হজযাত্রীদের সুবিধার্থে এই ভর্তুকি দেওয়া হত।

                     
২০১২ সালে তৎকালীন দ্বিতীয় ইউপিএ জমানায়, সুপ্রিম কোর্টের সাংবিধানিক বেঞ্চ কেন্দ্রকে নির্দেশ দিয়েছিল ২০২২ সালের মধ্যে ধাপে ধাপে ভর্তুকি তুলতে।শীর্ষ আদালতের রায়ের পর গঠিত হয় বিশেষ কমিটি।  প্রতিবছর ধাপে ধাপে সেই কমিটির সুপারিশ মেনে কমানো হয় হজ-ভর্তুকির পরিমাণ।  ২০১৩ সালে এই খাতে বরাদ্দ করা হয় ৬৮০ কোটি। ২০১৪ সালে হয় ৫৭৭ কোটি, ২০১৫ সালে ৫২৯ কোটি এবং ২০১৬ সালে ৪০৫ কোটি।এখন এই ভর্তুকি পুরো পুরি তুলে দিলো প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বাধীন বিজেপি সরকার।এদিন নকভি জানান, এবার থেকে ইসলাম ধর্মালম্বীদের উন্নয়নের বিভিন্ন প্রকল্পে হজ-ভর্তুকির জন্য বরাদ্দ অর্থ ব্যয় করা হবে। সেই লক্ষ্যে, সম্মানের সঙ্গে সংখ্যালঘুদের উন্নয়ন করতে বদ্ধপরিকর মোদী সরকার। তিনি বলেন, নারী ও শিশুর শিক্ষায় ব্যয় হবে ভর্তুকির টাকা। , ভর্তুকি ছাড়াই এবছর ১ লক্ষ ৭৫ হাজার মুসলিম ভারত থেকে হজযাত্রায় যাবেন। সংখ্যার বিচারে যা রেকর্ড ,জানান মুখতার আব্বাস নকভি ।
     
  নরেন্দ্র মোদি সরকারের এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছে তৃণমূল কংগ্রেস।তৃণমূল কংগ্রেস নেতা ও রাজ্যের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম বলেন , কেন্দ্রীয় সরকারের ভরতুকির টাকায় হজ করতে যান বহু ধর্মপ্রাণ গরিব মুসলিম। ভর্তুকি বন্ধ হয়ে গেলে,তাঁরা বিপদে পড়বেন ।
 
 বামপন্থী  নেতা মহম্মদ সেলিম হজ যাত্রায় ভর্তুকি প্রত্যাহার সেলিম বলেন , হজ যাত্রায় ভর্তুকি কথাটা ঠিক নয়।হজ যাত্রীদের জন্য খরচ করা উচিত।তার বক্তব্য -হজ যাত্রায় ভর্তুকি নিয়ে সিস্টেমের মধ্যে দুর্নীতি হতো। ভর্তুকি তুলে দিলে তা বন্ধ হবে। সেদিক দিয়ে ঠিক হয়েছে। এই ভর্তুকিএর টাকা ইসলাম ধর্মালম্বীদের উন্নয়নের খাতে খরচকে বাম নেতার মিথ্যাচার বলে মনে হয়েছে।

No comments:

Post a Comment

loading...