Saturday, 3 February 2018

মুসলিম যুবতীকে ভালোবাসার জন্য হিন্দু যুবকের গলা জবাই দিল্লিতে

ওয়েব ডেস্ক, ৩রা ফেব্রুয়ারী :- গত বৃহস্পতিবার 23 বছর বয়েসী অঙ্কিতকে রীতি মত গলা কেটে হত্যা করলো তার প্রেমিকার বাড়ির লোক। ঘটনাটি  দিল্লির পার্শ্ববর্তী খায়লা এলাকায়। লাভ জিহাদ নিয়ে বিতর্ক একদিকে যেমন চলছে। তেমনি দেশের মধ্যে বার বার মুসলিম মেয়েকে ভালোবাসার জন্য হিন্দু ছেলেদের হত্যার ঘটনা উঠে আসছে। বিহার, পশ্চিমবঙ্গ, কেরালার পর নতুন সংযোজন হলো দিল্লির নাম।

অঙ্কিত
অঙ্কিত পেশায় ফটোগ্রাফার ছিলেন ও ২০ বর্ষীয় শাহাজাদী কলেজের ছাত্রী। তারা একই এলাকায় বসবাস করতেন।  তাদের মধ্যে ধীরে ধীরে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। শাহাজাদির পরিবার অঙ্কিত হিন্দু হবার কারণে বরাবরই তাদের সম্পর্কের ঘোরতর বিরোধী ছিলেন। তারা অঙ্কিতকে বারংবার এই সম্পর্ক থেকে সরে যাবার জন্য হুমকি দিতেন। কিন্তু অঙ্কিত ও শাহাজাদী তাদের প্রেমে অবিচল ছিল এবং তারা খুব সত্বর বিয়ে করবে বলে ঠিক করেও ছিলেন। ইন্ডিয়া টুডের খবর অনুযায়ী গত বৃহস্পতিবার অঙ্কিতের সাথে তাদের দুজনের সম্পর্ক নিয়ে মেয়েটির বাবা, মা, মামা এবং ভাই এর প্রবল ঝগড়া হয়। অভিযোগ অনুযায়ী মেয়েটির বাড়ির লোকেরা ওই রাত্রে অঙ্কিত কে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে গিয়ে গলার নালী জবাই করে হত্যা করে। 



রাস্তা দিয়ে যাবার সময় কয়েকজন প্রতক্ষ্যদর্শী তিন জন খুনিকে ধরে ফেলেন ও পুলিশের হাতে প্রত্যার্পণ করেন।  এরা হলেন শাহাজাদির মা বাবা ও মামা ।  পুলিশ জানিয়েছে " মৃত যুবকের কাছে যেহেতু তার মানি ব্যাগ ও মোবাইল ছিল তার চুরির উদ্দেশ্যে এই খুন করা হয়নি। এই খুনের উদ্দেশ্যে সম্পূর্ণ ভাবে পরিষ্কার। আমরা খুনের ঘটনা নথিবদ্ধ করেছি (সেক্শন 30)। আশেপাশের এলাকা থেকে সিসিটিভির ফুটেজ সংগ্রহের চেষ্টা করা হচ্ছে"।  


অন্য দিকে শাহাজাদী তার বাড়ির লোকেদের বিরুদ্ধে পুলিশ থানায় খুনের অভিযোগ দায়ের করেছেন। মেয়েটি পরিবারের বিরুদ্ধে যাওয়ায় তার প্রাণ সংশয় দেখা দিয়েছে।

 এই ঘটনায় এলাকায় তীব্র চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়।  এলাকায় শান্তি শৃঙ্খলার স্বার্থে পুলিশের টহলদারি চলছে। 

No comments:

Post a Comment

loading...