Tuesday, 20 March 2018

আইসিস এর হাতে বাঙালি সহ ৩৯ জন ভারতীয় শ্রমিক নিহত ইরাকে, সংসদে স্বীকার সুষমার

ওয়েব ডেস্ক, ২০ শে মার্চ :- এতো দিন ধরে বিদেশ মন্ত্রী সুষমা স্বরাজ দাবি করে আসছিলেন যে ইরাকে অপহৃত ৩৯ ভারতীয় সবাই মসুলের জেলে বেঁচে  আছেন। কিন্তু আজ ৩৮ জনের ডিএনএ রিপোর্ট পাওয়ার পর সুষমা স্বরাজ স্বীকার করে নিয়েছেন ৩৯ ভারতীয় আর বেচে নেই।

প্রতীকী চিত্র 


আজ অকপটে উনি স্বীকার করেছেন ৩৯টি দেহ বাগদাদে পাঠানো হয়েছিল ডিএনএ পরীক্ষার জন্য৷ গতকাল সেই পরীক্ষার রিপোর্ট আসে৷ ৩৮জনের ডিএনএ মিলে গিয়েছে৷ একজনের ৭০ শতাংশ ডিএনএ মিলেছে৷ কারণ সেই ব্যক্তির বাবা মা কেউ ছিলেন না৷ ৩৯ জন ভারতীয়ের মধ্যে বেশিরভাগই পাঞ্জাবের বাসিন্দা ৷ এছাড়া ওডিশা, রাজস্থান ও পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দাও আছেন৷ তারা সকলেই নির্মাণ কাজের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন । কিন্তু একজন ভারতীয় কোনো ভাবে আইসিস জঙ্গি ডেরা থেকে পালিয়ে আসার পর দাবি করেছিলেন ৩৯ ভারতীয় আর বেঁচে নেই; তারা সবাই আইসিস জঙ্গিদের হাতে খুন হয়েছেন। ২014 সালে কুর্দিস্তানের রাজধানী ইরাবাল থেকে  যে  রিপোর্ট প্রকাশিত হয়েছিল ,সুষমা স্বরাজ আজকে সেই খবরের সত্যতাতে সিলমোহর দিয়েছেন।  যেখানে দুই বাংলাদেশীর শ্রমিকরা প্রথমে জানিয়েছিল, আইসিস জঙ্গিরা ভারতীয়দের উপর গণহত্যা চালায়।

বাংলাদেশীরা বলেন  40 তম ভারতীয় কর্মী ছিলেন  হারজিৎ মাসিহের , যিনি নিজের চোখে এই গণ হত্যা হতে দেখেন ।হারজিৎ মাসিহের ২015 সালে জঙ্গি গোষ্ঠীর ঘাঁটিগুলি থেকে অলৌকিকভাবে পালিয়ে যাওয়ার পরে ভারতে ফিরে আসেন, ভারতীয় কনসুলেটের সঙ্গে যোগাযোগ করার পর I

তবে সেই সময় সুষমা স্বরাজ অশ্বিকার করেন ভারতীয়দের মৃত্যুর ব্যাপারে । তিনি বলেন, " কোনও প্রমাণ ছাড়াই মারা গেছে বলে অনুমান করা পাপ। "২015 সালের জুলাই সুষমা স্বরাজ সংসদকে বলেন," যতক্ষণ না ৩৯ জন ভারতীয়র মৃত্যুর কোনো প্রমান পাওয়া যাচ্ছে , সরকার ফাইল বন্ধ করবেনা।

No comments:

Post a Comment

loading...