Friday, 23 March 2018

ইঁদুর মারার কেলেঙ্কারিতে বিজেপি নেতা তদন্ত চাইলেন

মহারাষ্ট্রে একটি নতুন ধরনের মামলা রুজু হয়েছে। এটি ইঁদুর মারার সঙ্গে জড়িত । মন্ত্রণালয়ে ইঁদুর মারার জন্য একটি কোম্পানিকে কন্ট্রাক্ট দেওয়া হয়  । কোম্পানিটি দাবি করছে ৭ দিনে ৩১৯৪০০ ইঁদুর তারা মেরেছেন । বিজেপি নেতা ও সাবেক মহারাষ্ট্রের মন্ত্রী  একনাথ খাদসে এটিকে দুর্নীতি হিসেবে আখ্যা দিয়েছেন এবং তদন্তের দাবি জানিয়েছেন । খাদসে এসেম্বলিতে  বলেন যে ৩১৯৪০০ টি ইঁদুরকে হত্যা করার জন্য কীভাবে চুক্তি হয়েছিল, কীভাবে কোম্পানিটি  এই কাজটি শুধু 7 দিনে সম্পন্ন করেছেন তার ব্যাখ্যা চান I
   
  তিনি বলেন,6 মাসের আলোচনায় নগরীর 6 লাখ ইঁদুরকে হত্যা করার জন্য বিএমসির দুই বছর সময় লেগেছে I   খাদসে  দাবি করেন, "একটি জরিপ থেকে দেখা যায় যে মন্ত্রণালয়ের 3,19,400 ইঁদুর রয়েছে। জেনারেল প্রশাসন বিভাগ একটি কাজের আদেশ জারি করেছিল । কোম্পানিকে  ছয় মাস সময় দেওয়া হলেও  শুধু সাত দিনের মধ্যে কোম্পানিটি এই কাজটি কি করে করেছেন তার ব্যাখ্যা চেয়েছেন ।"
   কোম্পানিটি দাবি করছে  তারা একদিনে ৪৫,6২8 ইঁদিকে হত্যা করেছে , 'এর অর্থ হচ্ছে দিনে ৪৫,6২8.57  টি ইঁদুর মারা গেছে । তাদের মধ্যে  ০.৫৭ জন নবজাতক জন্মানো উচিত।  তিনি বলেন যে এর  অর্থ দাঁড়ায় যে কোম্পানিটি  প্রতি মিনিটে ৩১.৬৮ ইঁদুর মেরেছে । তাদের ওজন প্রায় ৯১২৫.৭১  কেজি হওয়া উচিত , এবং সেগুলো ফেলার জন্য ট্রাক দরকার । কিন্তু কোম্পানিটির কাছে কোনো সদোত্তর নেই তারা কোথায় এগুলো ফেলেছিলো I
                         তিনি এও জানান মন্ত্রীলয়ে  ধৰ্ম পাতিল নামক একজন কৃষক কোম্পানির রাখা ইঁদুর বিষ খেয়ে আত্মহত্যা করেছিল , যখন তাকে বলা হয় তার জমি অধিগ্রহনের টাকা তাকে পুষিয়ে দেওয়া হয়েছে I রসিকতার সুরে খাদসে বলেন এই কাজটা করার জন্য ১০ টা ইঁদুরই মন্ত্রী সভার যথেষ্ট ছিল I
    বিজেপি নেতা একনাথ খাদসে  বলেন মন্ত্রণালয়ে ইঁদুর মারার বিষ রাখার কোনো অনুমতি দেওয়া হয়েছিল কিনা সেই সম্মন্ধে কোম্পানির তরফ থেকে কোনো সদোত্তর পাওয়া যায়নি I কিন্তু ৭ দিনে কি করে একটা কোম্পানি  তিন লক্ষ্য ইঁদুর মারলো , সেটা প্রশ্নের মধ্যেই আছে I তিনি আশংকা প্রকাশ করেন , কোম্পানির এসেসমেন্টএ কোথাও ভুল আছে I
    প্রশাসন বিভাগের মন্ত্রী মদন মেওয়ার বলেন যে সরকার এই কাজের জন্য প্রদত্ত চুক্তির তথ্য জানতে চাইবে এবং তা সাত দিনের মধ্যে  টেবিলে রাখবে।

No comments:

Post a Comment

loading...