Tuesday, 28 August 2018

বিপ্লব দেব কি জানেন তিনি কি বলছেন ?আবার নিজেকে হাসির খোরাক তৈরী করলেন

ওয়েব ডেস্ক ২৮ শে অগাস্ট ২০১৮ : বিপ্লব দেবের মতো ব্যক্তিত্ব যদি থাকেন তাহলে মুখের ব্যায়াম আলাদা করে করার কোনো দরকার পড়েনা , এমনিতেই মুখের ব্যায়াম হয়ে যায় ,অন্তত নেটিজেনদের একাংশের এরকমই অভিমত ৷ একটু মনে করিয়ে দিই , ডাক্তাররা সব সময় বলে থাকেন হাসি শরীরের পক্ষে এবং মুখও মন্ডলের পক্ষে ভীষণ জরুরি ৷ আর পরের পর বিপ্লব দেবের হাস্যকর মন্তব্য সে কাজটিই করে যাচ্ছে ৷ বাংলার বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ যেমন দিলীপ ঘসেই আছেন , তেমনি বিপ্লব দেব বিপ্লব দেবেই আছেন , "নো চেঞ্জ " ৷

 প্রসঙ্গত তাঁর এবারের মন্তব্য হাঁস নিয়ে৷ তাঁর মতে হাঁস নাকি জলে অক্সিজেনের পরিমাণ বাড়ায়! ফলে মাছচাষে সুবিধা হয়৷ মাছের বংশবৃদ্ধিও নাকি তাতেই হয়৷ তিনি বলেছেন হাঁস যখন জলে সাঁতার কাটে, তখন জলের অক্সিজেনের মাত্রা বৃদ্ধি করে৷ বেশি অক্সিজেন পেয়ে মাছের সংখ্যাও বাড়ে! ত্রিপুরার রুদ্রসাগরে ঐতিহ্যবাহী একটি নৌকা প্রতিযোগিতায় গিয়ে সোমবার বিকেলে এই মন্তব্য আসে বিপ্লব দেবের কাছ থেকে৷ তিনি এও ঘোষণা করেন যে মাছচাষ বাড়াতে তিনি মৎস্যজীবীদের ৫০ হাজার সাদা ক্ষুদে হাঁস উপহার দেবেন৷ শুধু জলে অক্সিজেন বাড়ানোই নয়, হাঁস নাকি যখন সাঁতার কাটে, তখন জল পরিশোধনও করে! তবে হাঁসের গুণাবলীর বর্ণনা এখানেই শেষ করেননি বিপ্লব দেব৷তিনি বলেন ছোট ছোট বাচ্চারাও হাঁসের কাছ থেকে উপকার পায়৷ প্রতিটি পরিবারের কাছে হাঁস আশীর্বাদ৷ প্রোটিম ভিটামিনের আঁতুড়ঘর নাকি হাঁস৷ হাঁস পালন প্রতিটি বাড়িতে আগে দেখা যেত৷ কিন্তু গত ২৫ বছরে সেই সংস্কৃতি আর নেই৷ এই বিষয়ে প্রাণী বিদ্যার অধ্যাপকদের মতামত জানতে চাওয়া হলে তারা বিপ্লব বাবুর দাবি কে নস্যাৎ করে দেন তারা বলেন হাঁসের সাঁতার কাটার সাথে জলের অক্সিজেন বাড়ার কোনো সম্ভাবনাই নেই ৷





তথ্য কৃতজ্ঞতা স্বীকার "কলকাতা ২৪*৭ "

No comments:

Post a Comment

loading...