Thursday, 23 August 2018

কেরলে যারা গোমাংস খান তাদের জন্য কোনো সাহায্য নয় :স্বামী চক্রপাণি মহারাজ

ওয়েব ডেস্ক ২৩শে অগাস্ট ২০১৮ :  ‌একদিকে মানুষের যখন হাহাকার অবস্থা , সেই সময়েও রাজনীতি করতে ছড়লেননা স্বামী চক্রপাণি মহারাজ ।বাংলা পরিভাষায় পিত্তি জ্বালানো কথা বলে মানুষের দুর্দশাকে প্রহসনে নামিয়ে আনলেন মহারাজ , এই নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় উঠল ,তিনি বলেন কেরলে বন্যা দুর্গতদের মধ্যে যাঁরা গরুর মাংস খান, তাঁদের কোনও ধরনের সহায়তা করা হবে না। জানালেন সারা ভারত হিন্দু মহাসভার নেতা স্বামী চক্রপাণি মহারাজ।



চক্রপাণি মহারাজ আরও জানান, বন্যা দুর্গতদের হলফনামা দিয়ে জানাতে হবে তাঁরা আর কোনওদিন গরুর মাংস খাবেন না। তবেই তিনি বন্যার জন্য ত্রাণ এবং তাঁর সাহায্য সেখানে পাঠাবেন। একটি সাক্ষাতকারে চক্রপাণি মহারাজ জানান, গোহত্যার কারণেই কেরলে এ ধরনের ভয়াবহ বিধ্বংসী বন্যা হয়েছে। যেখানে প্রায় ৪০০ জন মানুষের প্রাণ গিয়েছে। অনেক হিন্দুই মনে করেন গোহত্যা করা মহাপাপ। বর্তমানে কেরল বন্যা পরিস্থিতির সঙ্গে ক্রমাগত লড়ে চলেছে। গত একশো বছরে কেরলে এ ধরনের পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়নি। বহু মানুষের জীবন তছনছ করে দেওয়ার পাশাপাশি রাজ্যের অর্থনৈতিক ক্ষতিও বিপুল পরিমাণে রয়েছে। ১৯২৪ সালের বন্যার পর কেরলবাসী কোনওদিন এ ধরনের বন্যার মুখোমুখি হননি। দেশের প্রতিরক্ষা বাহিনী দিনরাত এক করে চালিয়ে যাচ্ছেন উদ্ধারকার্য। বিদ্যজনেদের একাংশের মত , কেরলের এই সময়ে যখন মানুষ খুব কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে , সেই সময় এরকম উল্টো পাল্টা কথা বলে নিজের জাত বেশ ভালো রকমে চেনালেন স্বামী চক্রপাণি মহারাজ এতটা হয়তো কেউই আশা করেননি ।


তথ্য কৃতজ্ঞতা স্বীকার "আজকাল "

No comments:

Post a Comment

loading...