Saturday, 25 August 2018

মমতার কারিশমাকে এতো ভয়? শেষ পর্যন্ত বিজেপির হাত ধরল কংগ্রেস ,পড়ুন

ওয়েব ডেস্ক ২৫শে অগাস্ট ২০১৮ : বঙ্গ রাজনীতি এসব  কি হচ্ছেটা কি ? এখন এই প্রশ্নটাই মানুষের মনে  মনে । অবিলম্বে কংগ্রেস হাই কম্যান্ড কে ঠিক করা উচিত তারা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত ধরে বিজেপিকে পরাস্ত করতে চাই আগামী ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনে না ,তাদের কথা মতো সাম্প্রদায়িক দল বিজেপির হাত শক্ত করবে ।কেননা দুই নৌকায় পা দিয়ে কখনো চলা যায়না বলেই মনে করছে বিদ্যজনেদের একাংশ ।প্রসঙ্গত মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ঠেকাতে ,মেখলিগঞ্জ ভোটবাড়ি গ্রাম পঞ্চায়েতে কংগ্রেস বিজেপির হাত ধরল , যেটা সাধারণ মানুষের বিশ্বাসই হচ্ছেনা ।


রাজ্যের শাসক দলকে বোর্ড গঠনে থেকে বিরত করতে বিজেপির সমর্থনে গ্রাম পঞ্চায়েতের দখল নিল কংগ্রেস৷ অবশ্য উপ প্রধান পদে জয় পেয়েছেন তৃণমূল প্রার্থী৷১০ আসনের মেখলিগঞ্জের ভোটবাড়ি গ্রাম পঞ্চায়েত৷ এর মধ্যে ৫টি যায় তৃণমূলের দখলে৷ বাকি ৫টির মধ্যে ৩টি বিজেপি ও ২টি পায় কংগ্রেস৷ শনিবার ছিল ওই পঞ্টায়েতের বোর্ড গঠন৷ ভোটাভুটিতে দেখা যায় বিজেপি ও কংগ্রেস এক হয়ে গিয়েছে৷ ফলে উভয় পক্ষের দখলে থাকে ৫টি করে আসন৷ শাসক ও বিরোধীদের সমসংখ্যক আসনের কারণে বোর্ড গড়তে টস হয়৷ টসে জিতে যায় বিরোধীরা৷বিজেপির সমর্থনে ভোটবাড়ি গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান নির্বাচিত হন কংগ্রেসের মৃত্যুঞ্জয় সিংহ সরকার৷ উপপ্রধান পদে টসে জয়ী হয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস৷
ভোটবাড়ি পঞ্চায়েতের প্রধান নির্বাচিত হয়ে কংগ্রেসের মৃত্যঞ্জয় সিংহ সরকার বলেন, ‘‘স্থানীয় স্থরে সমস্যার নিরিখে এই জোট, মানুষ তৃণমূল কংগ্রেস বিরোধী বোর্ড চাইছিল ভোটবাড়িতে৷ তাই মানুষের দাবি মেনে এই জোট হয়েছে৷ এলাকার উন্নয়নে সকলে মিলে কাজ করে যাব।’’ বিজেপি নেতা দধিরাম রায়ের দাবি, ‘‘রাজ্য জুরে তৃণমূল কংগ্রেসের দূর্নিতি ও সন্ত্রাস চলছে৷ তার প্রতিবাদেই কংগ্রেসকে সমর্থন করেছি৷’’বিরোধীরা এক হয়েছে তৃণমূলের বিরুদ্ধে৷ প্রায়ই এই অভিযোগ করেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ মেখলিগঞ্জের ভোটবাড়ির ঘটনা যেন তাঁর অভিযোগের বাস্তব প্রতিফলন৷বিদ্যজনেদের একাংশের প্রশ্ন যেই বিজেপিকে চিরকাল কংগ্রেস সাম্প্রদায়িক বলে এসেছে তাদের সঙ্গে পঞ্চায়েত স্তরে জোট করে কংগ্রেস কি তাদের ভাব মূর্তি অক্ষুন্ন রাখতে পারছে ? অধীর চোধুরীর মতো লোক যিনি অনেক সময় মমতাকে বিঁধেছেন বিজেপির দোসর বলে , তিনি এবার কি বলবেন ? অপেক্ষায় বাংলার মানুষ ৷


তথ্য কৃতজ্ঞতা স্বীকার "কলকাতা ২৪*৭  "

No comments:

Post a Comment

loading...