Friday, 24 August 2018

দিলীপ ঘোষের চ্যালেঞ্জ সাদর আমন্ত্রণে গ্রহণ করলেন অনুব্রত

ওয়েব ডেস্ক ২৪ শে অগাস্ট ২০১৮ : ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনে , বিজেপির তরফ থেকে দিলীপ ঘোষের ছুড়ে দেওয়া চ্যালেঞ্জ সাদর আমন্ত্রণে গ্রহণ করলেন কেষ্টদা , মানে তৃণমূলের বীরভূম জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল।সঙ্গে দিলীপ ঘোষের উদ্দেশ্যে পাগল তকমা লাগাতেও কসুর করলেননা , যেটা বিদ্যজনেদের একাংশ সঠিক বলেই মনে করছেন ।তিনি দিলীপ ঘোষের চ্যালেঞ্জকে গ্রহণ করে বলেন ২০১৯ এর " শান্তিপূর্ণ ভোটেই তাহলে দেখা যাবে কার কত দম ।
শুক্রবার সুপ্রিম কোর্টে পঞ্চায়েত মামলার রায় তৃণমূলের বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ীদের পক্ষে যাওয়ার পরই বীরভূমে শুরু হয়েছিল বিজয় উল্লাস। বিজয়ী প্রার্থীরা সামিল হয়েছিলেন সেই বিজয় উৎসবে। তখন বীরভূম তৃণমূলের মুখ অনুব্রত বিজেপিকে এক হাত নেন। এবার ২০১৯ তত্ত্বে বিজেপির চ্যালেঞ্জ নিয়ে জানিয়ে দেন, ফের বিগ জিরো পাবে বিজেপি। কার কত দম, ফের দেখিয়ে দেব ২০১৯-এ।
অনুব্রত মণ্ডলের গড়ে জেলা পরিষদের ৪২টি আসনেই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী হয়েছিল তৃণমূল। কিন্তু তৃণমূল প্রার্থীরা জয়টিকা পড়তে পারেননি, আদালতে মামলাটি আটকে থাকায়। এদিন সেই আইনি গেরো কেটে গেল। সুপ্রিম কোর্ট রায় দিল, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ীদের বিজয়লাভের শংসাপত্র দেওয়া যাবে। এই রায় শুনে অনুব্রত মণ্ডল বলে, জয় হল উন্নয়নের। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়নের ধারাকে আরও ত্বরাণ্বিত হবে সুপ্রিম কোর্টের এই রায়ের ফলে। উল্লেখ্য, ভোটের আগে থেকেই অনুব্রত মণ্ডল সুর তুলেছিলেন, রাস্তায় উন্নয়ন দাঁড়িয়ে রয়েছে। ফলে জয় তাঁদেরই হবে। বিদ্যজনেরা আজ বলেন সরকারের তরফ থেকে কাউকে নমিনেশন দিতে কখনো বাধা দেওয়া হয়নি ,বরং বিরোধীরাই নিজেদের হার অনিবার্য্য দেখে আর ভোটেই লড়বার  সাহস দেখায়নি ।আজ সর্বোচ্চ আদালতের রায়ে তা আরও একবার প্রমাণিত হল ।



তথ্য কৃতজ্ঞতা স্বীকার "ওয়ান ইন্ডিয়া বেঙ্গলি "

No comments:

Post a Comment

loading...