Sunday, 5 August 2018

বাজারে চাকরি যখন নেই ,সংরক্ষণ করে কি হবে ? :নিতিন গড়করি ,বিরোধীরা সরব

ওয়েব ডেস্ক ৫ই অগাস্ট ,২০১৮ : সংরক্ষণ করে লাভ কি ? যেখানে চাকরির বাজার দিনে দিনে সংকুচিত হচ্ছে ,সেখানে সংরক্ষণ করে কোনো লাভ হবে কি ? এই কথা খোদ কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নিতিন গড়কড়ির ।রাজনীতির সাথে যুক্ত ব্যক্তিত্বরা  চিন্তা ভাবনা করেই  কথা বলেন , কিন্তু মনের কথা এই ভাবে নিতিন গড়কড়ির বলে ফেলবেন এটা হয়তো বিজেপির কোনো অনুরাগীও আশা করতে পারেননি ।আর এই কথাতেই বিরোধীরা প্রশ্ন করতে শুরু করেছে , তাহলে প্রতি বছর ১ কোটি লোকের চাকরি দেব যে বলেছিলো বিজেপি যে গুলো তাহলে কি ?সংরক্ষণের দাবিতে গোটা মহারাষ্ট্রই উত্তাল। তীব্র থেকে তীব্রতর হয়েছে আন্দোলন।

তা নিয়েই সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নীতীন গড়কড়ি বলেন, “তর্কের খাতিরে যদি সংররক্ষণ দিয়েও দেওয়া হয়, তাহলে পালটা প্রশ্ন ওঠে, চাকরি কোথায়? আইটি-র কারণে ব্যাংকিং সেক্টরে চাকরি কমে আসছে।” সরকারি চাকরিও নেই সেভাবে, তাহলে সংরক্ষণ দিয়েও কী লাভ হবে সে প্রশ্নই তোলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। তাঁর দাবি, সংরক্ষণ নিয়ে একাধিক মত আছে। সকলেই বলছেন যে তিনি অনুন্নত শ্রেণির এবং সংরক্ষণের আওতায় আসতে চান। ফলে পুরো বিষয়টি নিয়েই রাজনীতি হচ্ছে। তাঁর মতে, যিনি গরিব মানুষ তিনি গরিব মানুষই। তাঁকে কোনও ধর্ম-জাতের নিগড়ে বেঁধে লাভ নেই। এই এক ধরনের মত যেমন আছে, আবার অন্য মত বলছে, প্রতিটি শ্রেণিরই যাঁরা একদম দরিদ্র তাঁদের উপর নজর দিতে হবে। পুরো বিষয়টিকে আর্থ-সামাজিক দৃষ্টিভঙ্গিতে দেখতে হবে বলে মত কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর। কিন্তু তা নিয়ে রাজনীতি কখনওই কাম্য নয়। তাঁর দাবি, মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী যথাসম্ভব দক্ষতায় পুরো বিষয়টি আলোচনার মাধ্যমে নিষ্পত্তি করতে চাইছেন। কিন্তু কোনও রাজনৈতিক দলেরই এই নিয়ে আগুনে ঘি ঢালা উচিত নয় বলেও মন্তব্য করেন মন্ত্রী।
বিরোধীরা সরব হয়ে বলেছেন তাহলে সরকার যে প্রতিশ্রুতি দেয় সেগুলো কি সব ভাওতা? কেন্দ্রীয়মন্ত্রী নিজের মুখে যেখানে বলছে চাকরির বাজার সংকুচিত হয়ে পড়ছে ,সেখানে সরকারের আসল এবং নিরুপায় চেহারাটাই তো প্রকট পেল ।





তথ্য কৃতজ্ঞতা স্বীকার "প্রতিদিন "

No comments:

Post a Comment

loading...