Tuesday, 14 August 2018

নরেন্দ্র মোদী, অমিত শাহের মস্তিস্ক প্রসূত ‘এক দেশ, এক ভোট’ এর ইচ্ছা মুখথুবড়ে পড়ল

ওয়েব ডেস্ক ১৪ই অগাস্ট ২০১৮ :নরেন্দ্র মোদী অমিত শাহের মস্তিস্ক প্রসূত  ‘এক দেশ, এক ভোট’ মুখথুবড়ে পড়ল নির্বাচন কমিশনের বাঁধ সাধায় ।নির্বাচন কমিশনার কার্যত তাদের এই ইচ্ছা উড়িয়েই দিলেন ।তার কোথায় এই মুহূর্তে এক দেশ এক নির্বাচনের ব্যাপারটা ,যেখানে লোকসভা বিধান সভা এক সাথে হবে সেটা ,সেটা সম্ভবপর নয়  ।নির্বাচন কমিশনের যুক্তি, দেশের সবক’টি রাজ্যের বিধানসভার সঙ্গে লোকসভা ভোট একইসঙ্গে করার জন্য প্রয়োজনীয় আইনি সংস্থান ভারতীয় সংবিধানে নেই। কারণ, সে ক্ষেত্রে বেশ কিছু বিধানসভার মেয়াদ পেরিয়ে যাওয়ার পরে বা আগে ভোট করতে হবে। ভারতীয় সংবিধানে সে রকম কোনও বিধি নেই।

পাশাপাশি, সব ক’টি রাজ্যের বিধানসভার সঙ্গে লোকসভা ভোট করার পরিকাঠামোও একটি বড় সমস্যা বলে জানিয়েছেন মুখ্য নির্বাচন কমিশনার ও পি রাওয়াত। যে বিপুল সংখ্যক ইভিএম ও ভিভিপ্যাট ( ভোট ভেরিফায়েবল পেপার ট্রেল মেশিনস) দরকার, তা নেই বলে জানিয়েছে কমিশন। একসঙ্গে নির্বাচন করতে হলে ২৪ লক্ষ ইভিএম দরকার। আর লোকসভা নির্বাচনের জন্য কমিশন ১২ লক্ষ এভিএমের ব্যবস্থা করতে পারে। একসঙ্গে ভোট করতে গেলে আরও ১২ লক্ষ ইভিএম প্রয়োজন হবে। আইন কমিশনকে নির্বাচন কমিশন জানিয়েছে, এই অতিরিক্তি ইভিএম মেশিন কিনতে লাগবে চার হাজার পাঁচশো কোটি টাকা।দেশের সর্বত্র একইসঙ্গে লোকসভা ও বিধানসভা নির্বাচনের পক্ষে সওয়াল করে সোমবারই আইন কমিশনকে আট পাতার চিঠি দেন বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ। আগামী বারোটি বিধানসভা নির্বাচনের সঙ্গে লোকসভা নির্বাচন জুড়ে দেওয়ার কথা জানান তিনি। দেশ জুড়ে সারা বছর কোথাও না কোথাও নির্বাচন হচ্ছে, এই পরিস্থিতি বদলানো দরকার বলে জানিয়েছিলেন তিনি। এর আগে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও ‘এক দেশ, এক ভোট নীতি’র পক্ষে সওয়াল করেছিলেন। রাজনৈতিক মহলের ধারণা, যে চার রাজ্যে পরিস্থিতি বিজেপির পক্ষে অনুকূল নয়, সেখানে তারা আরও কিছুটা সময় নিতে চাইছে। একসঙ্গে ভোট হলে রাজ্যগুলিতে ভোটব্যাঙ্কের হাল কিছুটা হলেও ফেরানোর সম্ভাবনা থাকবে।
কমিশনের তরফ থেকে পরিষ্কার করে দেওয়া হয়েছে , এরকম একটা কাজ করতে গেলে যে পরিকাঠামো দরকার সেটা ইতিমধ্যে নেই তাই ,এটা করতে গেলে কি কি দরকার তার একটা রোডম্যাপ নির্বাচন কমিশন পেশ করবে বলে সূত্রের খবর ।








তথ্য কৃতজ্ঞতা  স্বীকার" আনন্দবাজার পত্রিকা " 

No comments:

Post a Comment

loading...