Tuesday, 28 August 2018

একই সিরিঞ্জ দিয়ে সবাইকে ইনজেকশন, চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটল মধ্যপ্রদেশে

ওয়েব ডেস্ক ২৮ শে অগাস্ট ২০১৮ :একই সিরিঞ্জ দিয়ে ক্রমাগত একের পর  এক ইনজেকশন দিয়ে চলেছিলেন মধ্যপ্রদেশের দাতিয়া জেলা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ , তবে এখানেই শেষ নয় , মেয়াদ উত্তীর্ণ সিরিঞ্জ দিয়েও ইনজেকশন দেওয়ার জন্য শারীরিক অসুস্থতা বাড়তে থাকে বেশ কিছু রোগীর , যার জন্য একজনের মৃত্যুও হয় ৷সোমবার বিকেলে কর্তব্যরত হাসপাতালের কর্মী এই ইঞ্জেকশান দেন সব রোগীকে৷ তারপরেই শুরু হয় জটিলতা৷


 নিজেদের গাফিলতি অবশ্য স্বীকার করতে চায়নি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ৷ তবে পরে সংবাদমাধ্যমে ঘটনাটি ছড়িয়ে পড়তে দায় স্বীকার করা হয়৷হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের তরফে এক ডিউটি অফিসার একজনের মৃত্যুর খবরের সত্যতা স্বীকার করেছেন৷ বলা হয়েছে বাকি ২৫ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক৷ তবে তাদের চিকিৎসা চলছে৷ঘটনার খবর ছড়িয়ে পড়তেই হাসপাতালের অন্যান্য রোগীরা হাসপাতাল ছেড়ে পালিয়ে যান৷ রোগীর আত্মীয়দের কথায় এই হাসপাতালে রাখা হলে রোগীর প্রাণ সংশয় হতে পারেয়৷
এই ঘটনার পরে রীতিমতো বিক্ষোভ শুরু হয় হাসপাতালে৷ স্থানীয় পুলিশ ঘটনাস্থলে আসে৷ হাসপাতালের পক্ষ থেকে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে৷ মৃতের দেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায় পুলিশ৷ তদন্তকারী আধিকারিক জানিয়েছেন এই বিষয়ে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে৷ তারপরেই পদক্ষেপ নেওয়া হবে হাসপাতালের বিরুদ্ধে৷হাসপাতালের চিকিৎসক পি কে শর্মা অবশ্য গাফিলতি স্বীকার করে একটি ট্যুইট করেছেন৷ তিনি বলেছেন নার্সদের পক্ষ থেকেই এই ভুল হয়েছে৷ প্রথমত মেয়াদ উত্তীর্ণ সিরিঞ্জ ব্যবহার করা হয়েছে৷ দ্বিতীয়ত একই সিরিঞ্জ গরম জল বা ডিস্টিলড ওয়াটারে না পরিস্কার করে ব্যবহার করা হয়েছে৷ ফলে দ্রুত সংক্রমণ ছড়িয়েছে৷ বিদ্যজনেদের একাংশ প্রশ্ন তুলেছেন কি করে এরকম একটা গর্হিত কাজ হতে পারে বিজেপি শাসিত রাজ্যে ?যে ইনজেকশন দিয়েছিলো সে কি কোনো খবরই রাখেন , যে একই ইনজেকশন সবাইকে দিলে এইডস এর মতো মরণ রোগও ছড়িয়ে পড়তে পারে ? তার মানে কি এটাই প্রমান হয়না ,বিজেপি শাসিত মধ্যপ্রদেশ সেই তিমিরেই রয়েছে ৷


তথ্য কৃতজ্ঞতা স্বীকার "কলকাতা ২৪*৭ "

No comments:

Post a Comment

loading...