Sunday, 26 August 2018

মুজাফ্ফরপুরের পর, অনাথ আশ্রমের নির্যাতনের ঘটনা টাটা ইনস্টিটিউটের রিপোর্টে ধরা পড়ল

ওয়েব ডেস্ক ২৬শে অগাস্ট ২০১৮ :মুজাফ্ফরপুরের ধর্ষণ কান্ড প্রকাশ্যে আসার  পর আরও একটি নারকীয় ঘটনার সাক্ষী থাকল ভারতীয় জনগণ ।স্বভাবতই প্রশ্ন উঠেছে , বিজেপি শাসিত রাজ্য মানেই কি নিরীহদের ওপর অত্যাচার ? টাটা ইনস্টিটিউট অব সোশ্যাল সায়েন্সের রিপোর্টে  এক বিস্ফোরক ছবি ধরা পড়েছে অনাথ  আশ্রমগুলির ব্যাপারে । সদ্যোজাত থেকে ছ’‌বছর বয়স পর্যন্ত শিশুদের রাখা হয় এই সব সরকারি অনাথ আশ্রমে। যারা এখানে থাকে তাঁদের সঙ্গে কোউ কখনও কথাই বলে না । 


কারণ সেই সব হোমে কোনও প্রশিক্ষিত কর্মীই নেই যাঁরা তাঁদের সঙ্গে কথা বলতে পারে।  অনাহার আর অবেহলায় দিন যাপন করে এই সব হোমের শিশুরা। তাঁদের অধিকাংশই কন্যাশিশু।  এখানেই শেষে নয় শাস্তি দেওয়ার নাম করে তাঁদের উপর চলে নারকীয় অত্যাচার। ছোট ছোট শিশুদের অন্ধকার শৌচাগারে বন্ধ করে রাখা হয়। কান ধরে ওঠবোস করানো হয়। তারসঙ্গে চলে অকথ্য ভাষা ভর্ৎসনা।  টাটা ইনস্টিস্টিউট অব সোশ্যাল সায়েন্সের প্রতিনিধিরা জানিয়েছেন যেভাবে ছোট ছোট শিশুদের উপর অত্যাচার চালানো হয় তাতে তাঁরা আতঙ্কের মধ্যে থাকেন। যা শিশুদের মানসিক বিকাশ হতে দেয় না। এতটাই ভয় এবং আতঙ্কে দিন যাপন করে ছোট ছোট শিশুরা।  তাঁদের ঠিক মত দেখাশোনা করার পর্যাপ্ত কর্মী নেই। অনেক আশ্রমেই অতিরিক্ত শিশুকে গাদাগাদি করে রাখা হয়। তাঁদের শরীর স্বাস্থ্যের দিকে নজর দেওয়া দূরের কথা। একজন চিকিৎসকও সেখানে নেই। বিদ্যজনেদের একাংশ প্রশ্ন তুলেছেন তাহলে এবার বিজেপি সরকার কি এটাই বলবে যে মেহুল চোকসি , বিজয় মাল্য , ও নীরব মোদির ভারতীয় বাজার থেকে টাকা তুলে নিয়ে গেছে বলেই এই অনাথ শিশুদের জন্য কিছুই করা যাচ্ছে না ?জনগণ উত্তরের প্রতীক্ষায় বসে রইল কিন্তু !



তথ্য কৃতজ্ঞতা স্বীকার "আজকাল "  

No comments:

Post a Comment

loading...