Saturday, 1 September 2018

মমতার উন্নতিতে আপ্লুত হয়ে দলে দলে বিজেপি কর্মীরা তৃণমূলে যোগদান করলেন

ওয়েব ডেস্ক ১লা সেপ্টেম্বর ,২০১৮ : বিদ্যজনেদের একাংশের অভিমত মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে বেকায়দায় ফেলার জন্য আলিমুদ্দিনের প্রচ্ছন্ন মদতে একটা সময় বামকর্মীরা দলে দলে বিজেপিতে যোগদান করেছিল , এখন তারাই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নতিতে প্রভাবিত তৃণমূলে যোগ দিচ্ছে ।


প্রসঙ্গত সর্ব ভারতীয় বিজেপি সভাপতি অমিত শাহের তথাকথিত আসন্ন  লোকসভা নির্বাচনে বাংলার থেকে বিজেপির আসন জেতার  "টার্গেট" কে বুড়ো আঙ্গুল দেখিয়ে  শুক্রবার খড়গপুর কেন্দ্রের প্রায় পাঁচশ জন বিজেপি কর্মী যোগ দিলেন তৃণমূলে।কংগ্রেস ও বাম দল ছেড়ে নেতা, কর্মীদের শাসক দলে যোগ দেওটা এখন নিয়মে পরিণত হয়েছে। শুক্রবার তৃণমূল ভবনে তারই পুনরাবৃত্তি হয়। বিরোধী কংগ্রেস ও বাম দল ছেড়ে এদিন জোড়া ফুল শিবিরে নাম লেখায় প্রায় সাড়ে চারশ জন। সদ্য তৃণমূলে যোগদানকারীদের স্বাগত জানান বিদ্যুত্‍ মন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় ও ভাটপাড়ার বিধায়ক অর্জুন সিং।তৃণমূল সূত্রে খবর, রাজ্য সভাপতির কাজে ও কথায় অত্যন্ত অসন্তুষ্ট খড়গপুর কেন্দ্রের বিজেপি কর্মীরা। তৃণমূল নেত্রীর উন্নয়নের কাজে সহায়তার প্রার্থনা জানিয়ে শাসক দলে যোগ দেওয়ার জন্য চিঠি দিয়েছিলেন এরা। সেই চিঠি দলীয় বৈঠকে বিবেচনা করা হয়। এদিন তৃণমূল ভবনে গেরুয়া শিবির ছেড়ে কর্মীরা যোগ দেন শাসক শিবিরে।
শোভনদেববাবু বলেন, ''তৃণমূল নেত্রীকে প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষের মন্তব্যে ক্ষুব্দ বিজেপির এই কর্মীরা। সেই প্রতিবাদেই তারা দল ছাড়তে চেয়েছিলেন।'' ২১শের ভোটে খড়গপুর কেন্দ্রে দিলীপ ঘোষ যাতে প্রার্থী হয়ে দাঁড়ানোর সাহস না দেখান সেই স্তরে তৃণমূলের সংগঠন তৈরির প্রতিশ্রুতি নেওয়া হয় এদিনের যোগ দান কর্মসূচির মধ্যে দিয়ে।বিদ্যজনেদের একাংশের মত , বিজেপির বিদায় ঘন্টা বেজে গিয়েছে , এখন চলে যাওয়াটা শুধু সময়ের অপেক্ষা । তবে যে ভাবে বিজেপি দেশের মানুষকে মিথ্যে স্বপ্ন দেখিয়েছে , সেটা অন্য দলের অভিপ্রায়ের মধ্যেই আসেনা ,এটাই বাস্তব ।



তথ্য কৃতজ্ঞতা স্বীকার "ডেইলি হান্ট "

No comments:

Post a Comment

loading...