Monday, 24 September 2018

পুলিশকে পেটানোর নিদান শুনিয়ে শ্রীঘরে ঠাঁই বিজেপি নেতার ,পড়ুন

ওয়েব ডেস্ক  ২৪শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ :রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ যখন পুলিশকে আক্রমণের কথা বলেছেন তাহলে তার চেলা চামুণ্ডারাও পিছিয়ে থাকবেন কেন ? অতএব যা হওয়ার তাই হল শ্রীঘরে ঠাই ।প্রসঙ্গত ইসলামপুরের ঘটনাকে কেন্দ্র করে পুলিসকে পেটানোর নিদান দিয়ে আরও উত্তেজনা ছড়ালেন বিজেপি‌র উত্তর দিনাজপুর জেলা সভাপতি শঙ্কর চক্রবর্তী।

 কিন্তু বাজার গরম করার চেষ্টা বিফলে গেল। ইসলামপুর থেকে সন্ধ্যায় গাড়িতে রায়গঞ্জ অভিমুখে রওনা হলে দো মোহনার কাছে বোতলবাড়ি থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করল পুলিস।  পুলিসের দাবি, নতুন করে যাতে কোনও হিংসা ছড়াতে  না পারে, তার জন্যই এই পদক্ষেপ । তিনি আরো বলেছিলেন  গ্রামবাসীদের উদ্দেশ্যে , ‌‘‌গ্রামে যেন পুলিস ঢুকতে না পারে। ঢুকলে যেন বেরোতে না পারে। পুলিস ঢুকলেই গাছে বেঁধে রাখবেন। নিজেদের সম্মানরক্ষার জন্য বাঁশ রাখবেন। তা দিয়ে পেটাবেন। তদন্তের নামে ওরা নিরাপরাধ গ্রামবাসীদের গ্রেপ্তার করছে। মহিলাদের সঙ্গে অশ্লীল আচরণ করেছে। যারা এমন করে সেই পুলিস যে ভাষা বোঝে তাদের সেই ভাষায় জবাব দিতে হবে।’‌ এরপর পুলিসদের সামাজিকভাবে বয়কট করার নিদান দেন। বলেন, ‘‌কুকুরকে জল দেবেন, কিন্তু পুলিসকে দেবেন না। পুলিসের ছেলে–মেয়েরা যদি পথদুর্ঘটনায় জখম হয়, তাঁদের হাসপাতালে নিয়ে যাবেন না। ছাগলকে হাসপাতালে নিয়ে যাবেন, পুলিসকে নিয়ে যাবেন না।’‌ এরপর সরাসরি উত্তর দিনাজপুর জেলা পুলিস সুপারকেই কাঠগড়ায় তুলে জানান, ‘‌আপনিই এখানে এসে আগুন লাগিয়েছেন। আগুন না নিভলে আপনাকে এই জেলায় থাকতে দেব না।’‌ বিদ্যজনেদের একাংশের মত, বাজার গরম করার জন্যই এরকম পদক্ষেপ নিয়েছিলেন শঙ্কর চক্রবর্তী,এতো টিভি চ্যানেল দেখে বাজার সম্পূর্ণ প্রচারের আলো নিজের দিকে টেনে নেওয়ার লোভ সামলাতে পারেননি  ।




তথ্য কৃতজ্ঞতা স্বীকার "আজকাল"  

No comments:

Post a Comment

loading...