Monday, 17 September 2018

নিজের চরণের জল পান করাচ্ছেন বিজেপি সাংসদ এক দলীয় কর্মীকে । এটাও কি সম্ভব ?

ওয়েব ডেস্ক ১৭ই সেপ্টেম্বর ২০১৮:এটাও কি সম্ভম ? একজন সাংসদের তিনি তার পা ধোয়া জল খেতে দিচ্ছেন তার এক দলীয় কর্মীকে ?সে দলীয় কর্মী যতই নিজের ইচ্ছায় এই কাজ করতে চাননা কেন , তিনি  সাংসদ হয়ে এরকম কাজ করতে দিলেন কি করে ।এই কর্ম কান্ডটি ঘটিয়েছেন বিজেপির এক কর্মী যিনি সাংসদের পা ধোয়া জল চরণামৃত মনে করে পান করে চাঞ্চল্যকর সৃষ্টি তৈরী করেছেন ।তাঁর প্রশংসায় পঞ্চমুখ দলের কর্মীরা। সাংসদ হিসেবে অনেক কাজ করেছেন তিনি। সেই কারণে প্রিয় সাংসদের পা ধোয়া জল খেয়ে তাঁকে সম্মান জানাল এক কর্মী। আর এতেই আপ্লুত সাংসদ।

আলোচিত সাংসদের নাম ডাঃ নিশিকান্ত দুবে। নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে তাঁর সাংসদ জীবনের গর্বের মুহূর্তের ভিডিও শেয়ার করেছেন। একই সঙ্গে ক্যাপশনে লিখে দিয়েছেন ঐ ঘটনায় তাঁর মনের আনন্দের কাহিনী। ঝাড়খণ্ডের গড্ডা লোকসভা কেন্দ্র থেকে ২০১৪ সালে ভারতীয় জনতা পার্টির টিকিটে জিতে তিনি সাংসদ হয়েছেন।ওই ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে যে মঞ্চে বসে রয়েছে সাংসদ নিশিকান্ত দুবে। সঞ্চালকের স্লোগানের সঙ্গে গলা মেলাচ্ছেন সভায় উপস্থিত কর্মীরা। সকলেই প্রশংসায় ভরিয়ে দিচ্ছেন সাংসদ নিশিকান্তকে। এরপরেই এক কর্মী উঠে এল মঞ্চে। সাংসদের পা জল দিয়ে ধুইয়ে দিয়ে মুছে দিচ্ছেন তিনি। এরপরেই সেই পা ধোয়া জল খেয়ে নিলেন ওই কর্মী। সঙ্গে সঙ্গে সাংসদের জয় ধ্বনিতে ভরে উঠল সভা চত্বর।সমগ্র বিষয়টি বেশ ভালভাবেই উপভোগ করেছেন সাংসদ নিশিকান্ত দুবে। একবারের জন্যেও বাধা দেননি ওই কর্মীকে। জানা গিয়েছে ওই কর্মীর নাম পবন শাহ। সাংসদ হয়ে দেওয়া প্রতিশ্রুতি পালন করার কারণেই নিশিকান্তকে সম্মান জানিয়েছেন পবন।রাজতন্ত্র বা সামন্ততন্ত্র প্রথা যখন চালু ছিল তখন এই ধরনের ছবি ছিল খুবই স্বাভাবিক। কিন্তু গণতন্ত্রে জনপ্রতিনিধির পা ধোয়া জল খাবে সাধারণ মানুষ! বিষয়টা ভাবতেও একটু অবাক লাগে। সেই ঘটনায় আবার গর্ব অনুভব করছেন সাংসদ। যার নামের আগে রয়েছে ‘ডাঃ’ লেখা উপসর্গ।রবিবার বিকেলের দিকে ওই ঘটনার ভিডিও এবং ছবি ফেসবুকে পোস্ট করেন সাংসদ নিশিকান্ত দুবে। ক্যাপশনে তিনি লেখেন, “আজ এক মহান বিজেপি কর্মী পবন শাহ সহস্রাধিক মানুষের সামনে আমার পা ধুইয়ে দিয়ে সেই জল খেয়েছেন।” এই ঘটনায় তিনি পরম সুখ পেয়েছেন বলে জানিয়েছেন সাংসদ নিশিকান্ত। একই সঙ্গে তিনি আরও জানিয়েছেন যে বাবা-মায়ের পা ধোয়া জল তিনি আগে খেয়েছেন। এবার দলীয় কর্মীর ‘পরিষ্কার’ পা ধোয়া জল পান করতে তিনি  আগ্রহী।এই বক্তব্য থেকে আবার জন্ম নিয়েছে নয়া বিতর্ক। কারণ দলীয় কর্মীর ‘পরিষ্কার’ পা ধোয়া জল খেতে তিনি আগ্রহী। তাহলে তাঁর পা কি খুব নোংরা ছিল? সেই নোংরা জলই পান করেছেন পবন শাহ?বিদ্যজনেদের একাংশের প্রশ্ন  , বিজেপি নেতা , সাংসদরা কি নিজেদের ভগবানের উর্ধে মনে করছেন ? এর ফল কখনোই ভালো হবেনা , এয়ার বহিঃপ্রকাশ হবে ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনে , জেতার বিজেপির জন্য মোটেও সুখের হবেনা ।



তথ্য কৃতজ্ঞতা স্বীকার "কলকাতা ২৪*৭" 

No comments:

Post a Comment

loading...