Saturday, 8 September 2018

মোদীকে রামকৃষ্ণ বলে বিপ্লব দেবেকে মনে করালেন বাংলার জয়, আবার একটি দ্বায়িত্ব জ্ঞানহীন মন্তব্য

ওয়েব ডেস্ক ৮ই সেপ্টেম্বর ২০১৮: বাংলার জয় বন্দ্যোপাধ্যায় কি বিপ্লব দেবে পরিণত হওয়ার চেষ্টাই আছেন ? এখন এই প্রশ্নটাই মানুষের মুখে মুখে । নেটিজেনদের অভিমত, মনের অলখ্যে সেই বাসনাই যদি জেগে থাকে তাহলে বিপ্লব বাবুর মতন  হাসির খোরাক হতে আর বেশিদিন বাকি নেই ।


নিজেকে হাসির খোরাক তৈরী করে বিজেপির জয় বন্দ্যোপাধ্যায় মন্তব্য করেন মোদীও নাকি রামকৃষ্ণের মতো যুগাবতার! ,আবার এও বলতে ভোলেননি বিজেপি-তে পরিশ্রম করলে দ্রুত ফল পাওয়া যায়৷সদ্য দলের ন্যাশনাল একজিকিউটিভ কাউন্সিলের সদস্য হয়েছেন জয়। ২০০৯ সালের লোকসভা নির্বাচন নিয়ে দলের একজিকিউটিভ কাউন্সিলের মিটিং যোগ দিতে শুক্রবার দমদম এয়ারপোর্ট থেকে দিল্লি উড়ে যান জয়। অভিনয় থেকে বাংলার রাজনীতিতে পা রেখেছেন জয়। রাজ্যে বিজেপির হয়ে নির্বাচনও লড়েছেন। প্রথমবার একজিকিউটিভ কাউন্সিলের মিটিংয়ে যাচ্ছেন, কী বলবেন এটা নিয়ে? জয় বলেন, “দেখুন আমি নরেন্দ্র মোদীকে শ্রীরামকৃষ্ণ ভেবে দেশ সেবা করতে এসেছি। যতদিন বাঁচবো, ওর আদর্শ নিয়ে দেশের মানুষের পাশে থাকব। আমি এসি ঘরে বসতে আসিনি। তাই প্রথম দিন থেকেই বিজেপির হয়ে মানুষের পাশে রয়েছি।” তবে মেকি কথাগুলো বলতে বলতে বিজেপি অন্দরের স্বজন পোষণের ইঙ্গিত তার অন্তর থেকে বেরিয়ে আসে ,জয়ের কথায়, “দেখুন নরেন্দ্র মোদী প্রধানমন্ত্রীর হওয়ার আগে থেকেই আমি বিজেপিতে রয়েছি। সেক্ষেত্রে মাঝে একটা খারাপ লাগা তৈরি হয়েছিল যখন দেখেছিলাম আমার অনেকে সহকর্মী এগিয়েছে কিন্তু আমি এগোতে পারিনি। কিন্তু আজ প্রমাণিত বিজেপিতে থেকে পরিশ্রম করলে তার ফল পাওয়া যায়।” বিদ্যজনেদের একাংশের অভিমত , অনেকদিন ধরে কেন্দ্র থেকে কিছু পায়নি বলেই নরেন্দ্র মোদীর সম্বন্ধ্যে গুণগান করবেন বলে আগে থেকেই ঠিক করেছিলেন জয় , শুধু বলতে গিয়ে হাস্যকর পরিস্থিতি সৃষ্টি করে ফেলেছেন এই যা ।তবে তার কথাতেই পরিষ্কার বিজেপিতে ভয়ানক ভাবে স্বজন পোষণের ব্যাপারটা আছে ।






তথ্য কৃতজ্ঞতা স্বীকার "কলকাতা ২৪ *৭  "  

No comments:

Post a Comment

loading...