Friday, 28 September 2018

সংখ্যালঘুদের বৃত্তিতে সাইবার প্রতারণা বরদাস্ত নয়; কড়া হুঁশিয়ারি রাজ্য সরকারের

এইবার সংখ্যালঘুদের বৃতিটি নিয়ে শুরু হয়েগেলো সাইবার প্রতারণা। বর্তমানে নানা অছিলায় টাকা হাতিয়ে নেওয়ার জন্য এই  সাইবার প্রযুক্তি একটি ধারালো অস্ত্র হয়ে দাঁড়িয়েছে , শীর্ষে রয়েছে এই রাজ্য। এইবার সাইবার প্রযুক্তির প্রতারণার স্বীকার রাজ্যসরকারের দেওয়া সংখ্যালঘু দের বৃত্তির টাকায়। সংখ্যালঘু উন্নয়ন বিত্ত নিগমের প্রতিনিধিদের অভিযোগ  -  সংখ্যালঘুদের বৃত্তির আবেদনে ভুয়ো নাম ঢুকানো হচ্ছে। নিগমের ম্যানেজিং ডিরেক্টার মৃগাঙ্ক বিশ্বাস ভুয়ো আবেদনকারী দের আবেদনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য জেলাশাসককে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য জানিয়েছেন।


ভুয়ো বৃত্তি চক্রে পড়ুয়াদের একাংশ এবং সংশ্লিষ্ট স্কুল কার্তি পক্ষের একাংশের যোগসাজস রয়েছে বলে মৃগাঙ্ক বাবু জানিয়েছেন। আবার অনেক ক্ষেত্রে দেখা যাচ্ছে - পড়ুয়ারা যেই তথ্য প্রযুক্তি কেন্দ্র গুলি থেকে এই আবেদন গুলি করছে ,সেই পারিসেবাকেন্দ্র গুলিও এই চক্রের সাথে জড়িত। তারাই অনেক ক্ষেত্রে ভুয়ো আবেদন স্কুলে পাঠিয়ে দিচ্ছে।স্কুলের নিজস্ব আইডি পাসওয়ার্ড চলেযাচ্ছে ঐসব তথ্যপ্রযুক্তি পরিষেবা কেন্দ্রে। এমনকি এইসব তথ্যের যাচাই করার দায়িত্ব  থাকছে ঐসব পরিষেবা কেন্দ্র গুলির হাতেইযার ফলে সংখ্যালঘুদের বৃত্তির টাকাও ঢুকে যাচ্ছে প্রতারকদের একাউন্ট। এইসব প্রতারকদের  ছকে প্রতারণার স্বীকার হচ্ছে -প্রকৃত অসহায় ,দারিদ্র সংখ্যালঘু ছাত্ররা।
 বর্তমান পরিস্থিতিতে এইসমস্যার সমাধানে রাজ্য সরকার,সরকারি প্রতিনিধিদের ববিশেষ ভাবে খরিয়াল রাখতে বলেছে ।জেলাশাসকের এই বিষয়ে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়্যা হয়েছে।রাজ্য সরকার সূত্রে খবর খুব তাড়াতাড়ি  এইসব প্রতারণা চক্র  গুলিকে ধরে করা শাস্তির ব্যবস্থা করা হচ্ছে। এই বিষয়ে স্কুল গুলিকেও নিজস্ব পাসওয়ার্ড গোপন রাখতে বলা হয়েছে।




No comments:

Post a Comment

loading...