Wednesday, 12 September 2018

যোগী আদিত্যনাথের হাস্যকর নির্দেশ , আখের বদলে অন্য ফসল ফলাক চাষিরা, কারণ মধুমেহ বাড়ছে

ওয়েব ডেস্ক ১২ই সেপ্টেম্বর ২০১৮ : বিজেপি নেতা মন্ত্রী মানেই কি  হাস্যকর , দায়িত্বজ্ঞানহীন মন্তব্য ? এখন এই কথাটাই  সোশ্যাল মিডিয়ায় চাউর হচ্ছে ৷বিপ্লব দেব ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী , প্রায়ই দায়িত্ব জ্ঞানহীন মন্তব্য করে হাসির খোরাক হন সোশ্যাল মিডিয়ায় , এবার উদ্ভট কথা বলে জনসাধারণকে হতবাক করে দিলেন যোগী আদিত্যনাথ ৷ তিনি বলেন মধুমেহ বাড়ছে বলে আখের চাষ বন্ধ করে অনন্য ফসলের দিকে মনোবিশ করা দরকার চাষিদের  ৷

মঙ্গলবার, দিল্লি-যমুনেত্রী হাইওয়ের শিলান্যাস অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে এই মন্তব্য করেন আদিত্যনাথ। ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নীতীন গডকরি। সেখানেই চাষিদের উদ্দেশ্যে আদিত্যনাথ বলেন, ‘‌দিল্লির বাজার কাছেই, তাই আখ ছাড়াও অন্য ফসল ফলানোর কথা ভাবতে পারে তাঁরা৷ কোনও পৃথকীকরণ না করে শহরের সঙ্গে সঙ্গে গ্রামেও পর্যাপ্ত বিদ্যুতের ব্যবস্থা করা হয়েছে, বসপা-সপা সরকারের সময় যে বৈষম্য নজরে আসতো তা তাঁর সরকার করে না৷’‌ এর আগে গত জুনে আখ চাষিদের জন্য কেন্দ্রীয় সরকার ৮০০০ কোটি টাকার প্যাকেজ ঘোষণা করতে চলেছে বলে জানা গিয়েছিল৷ চিনির কারখানা মালিকদের কাছে চাষিদের পাওনা টাকার পরিমাণ দেখে আশঙ্কিত কেন্দ্র সরকার৷ দেশজুড়ে বিভিন্ন উপনির্বাচনে হার এবং সেই সঙ্গে বিভিন্ন রাজ্যে বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে হয়ে চলা কৃষক আন্দোলনে কপালে চিন্তার ভাঁজ পড়েছে কেন্দ্রের৷ শেষ পর্যন্ত, আখচাষিদের ক্ষোভ ঠান্ডা করতে না পারলে আগামী বছরের লোকসভা নির্বাচনে বড়সড় সমস্যার মুখে পড়বে বিজেপি সরকার, এটা পরিষ্কার হওয়ার পরেই ওই ঘোষণা বলে মনে করা হয়৷প্রসঙ্গত, মোট ৮০০০ হাজার কোটি টাকার প্যাকেজের মধ্যে ৩০ লাখ মেট্রিক টন আখ সংরক্ষণ করে রাখার ব্যবস্থা, ইথানল উৎপাদন বাড়ানো, চিনির দাম বাড়ানো সহ একগুচ্ছ পরিকল্পনা রয়েছে৷ আখ চাষিরা চিনির কারখানা থেকে নেওয়া টাকাও যাতে সহজে মেটাতে পারেন এই প্যাকেজে সেই ব্যবস্থাও থাকবে বলে জানা গিয়েছিল৷ বিদ্যজনেদের একাংশের দাবি আখের চাষ মানে এটা নয় সাধারণ মানুষকে জোর জবরদস্তি খেতে বলা হচ্ছে ৷ আখ থেকে যে চিনি উৎপাদন হচ্ছে , সেটা কে কতটা খাবে না খাবে সেটা তাদের ব্যক্তি গত ব্যাপার ৷ তাই বলে আখ চাষ বন্ধ করা উচিত এটা বলা এক দমই ঠিক হয়নি বলে মনে করেন বিদ্যজনের একাংশ  ৷


তথ্য কৃতজ্ঞতা স্বীকার "আজকাল "

No comments:

Post a Comment

loading...