Sunday, 30 September 2018

ইন্দোরে উদ্ধার , ৫০ লক্ষ মানুষ একসঙ্গে মেরে ফেলার ওষুধ

ওয়েব ডেস্ক ৩০শে সেপ্টেম্বর ২০১৮: যত কান্ড বিজেপি শাসিত  রাজ্যে , ক্রমাগত ধর্ষণ , অ্যাম্বুলেন্স এর অভাবে প্রাণ যাওয়া , ঠেলায় করে রুগীকে হসপিটালে নিয়ে যাওয়া , এসব তো ছিলই ৷ এবার নব তম সংযোজন , সিন্থেটিক ওপিয়েড এবং ফেন্টানাইল। একেবারেই অপরিচিত দুই মারণ রাসায়নিক উদ্ধার হল ইন্দোরে।

 গোপন সূত্রে খবর পেয়ে শহরের একটি বেসরকারি রাসায়নিক গবেষণাগারে অভিযান চালায় ডিরেক্টরেট অব রেভিনিউ ইন্টালিজেন্স (‌ডিআরআই)‌ অভিযান চালায়। যে পরিমাণ মারণ রাসায়নিক এখান থেকে উদ্ধার হয়েছে তাতে অনায়াসে ৪০ থেকে ৫০ লাখ মানুষ মারা যেতে পারে। এতটাই শক্তিশালী এই রাসায়নিক যে হেরোইনের থেকে ৫০ গুণ বেশি ক্ষতিকর প্রভাব রয়েছে। ডিআরআইয়ের ডিজি ডি পি দাশ জানিয়েছেন, ভারতে এই প্রথম এই মারণ রাসায়নিকের সন্ধান পাওয়া গেল ।ইন্দোরের এক স্থানীয় ব্যবসায়ী এবং এক মার্কিন গবেষক যৌথ উদ্যোগে রাসায়নিক কারখানাটি চালাতেন। মারণ এই রাসায়নিকের বাজার মূল্য ১১০ কোটি টাকা। এতটাই মারাত্মক এই রাসায়নিক সহজে বাতাসে ছড়িয়ে পড়তে পারে। তারপর সেটি গায়ের চামড়ার মধ্যে মিশে যায়। মাত্র দুই মিলিগ্রাম ফেন্টানাইলে  ২০ লাখ লোক মারা যেতে পারে।  মরফিনের থেকেও ১০০ গুন বেশি মারণ এই রাসায়নিক। যাতে এটি সুরক্ষিত করে রাখা হতে পারে তা নিয়ে গবেষণা করছেন ডিআরডিও–র বিজ্ঞানীরা। বিদ্যজনেদের দাবি  কি করে ওরকম মারণ রাসায়নিক ওই গবেষণাগারে এলো তার তদন্ত হওয়া উচিত  ।





তথ্য কৃতজ্ঞতা স্বীকার "আজকাল "

No comments:

Post a Comment

loading...