Thursday, 13 September 2018

দিল্লির মতো জায়গা যেখানে বিজেপির শীর্ষ স্থানীয় নেতারা বসেন ,সেখানে পরিচারিকারাও সুরক্ষিত নয়

ওয়েব ডেস্ক ১৩ই সেপ্টেম্বর ২০১৮:দিল্লির মতো জায়গা যেখানে সংসদ ভবন রয়েছে , যেখানে প্রধানমন্ত্রীর দফতর রয়েছে , যেখানে বিজেপির তাবড় তাবড় নেতারা ওঠা বসা করেন সেখানে চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে এলো ।বাড়ির পরিচারিকাদের মধ্যে ২৯ শতাংশ যৌন হেনস্থার শিকার হয়েছেন এবং ৬৫.‌৬ শতাংশ পরিচারিকা বা পরিচারক বাড়ির মালিকের সঙ্গে প্রতারণা করেছেন। এক সমীক্ষায় এই ফলাফল উঠে এসেছে।




 সম্প্রতি এক পর্যবেক্ষণে দেখা গিয়েছে, এ বছরের জুন মাস পর্যন্ত গুরুগ্রাম, ফরিদাবাদ এবং দক্ষিণ দিল্লির মোট ২৯১ জন বাড়ির কাজের মহিলারা যৌন হেনস্থার শিকার হয়েছেন।মারাঠা ফ্যারেল সংগঠন পিআরআইএ–এর সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে এই সমীক্ষা করে জানতে পেরেছে, ৬১.‌৮ শতাংশ মহিলাদের বাজে অঙ্গভঙ্গি দেখানো হয় এবং শিস মেরে তাঁদের বিরক্ত করা হয়। ৫২ শতাংশ মহিলাদের হোয়াটস অ্যাপ এবং মেসেজে যৌন নিগ্রহ করা হয়। দিল্লির ১১ টি জেলায় এই সমীক্ষা করে জানতে পেরেছে সংগঠনটি। এঁদের মধ্যে মাত্র ২ জন স্থানীয় পুলিসের কাছে অভিযোগ দায়ের করেছে। এ বিষয়ে জানতে পেরে দিল্লির উপ–মুখ্যমন্ত্রী মণিশ সিশোদিয়া জানিয়েছেন, এ বিষয়ে স্থানীয় কমিটি গঠন করতে হবে। যৌন নিগ্রহ আইনকে মাথায় রেখে এই কমিটি কাজ করবে এবং তা ২–৩ সপ্তাহের মধ্যেই গঠন হবে বলে আশ্বাস দিয়েছে উপ–মুখ্যমন্ত্রী। তিনি এ বিষয়ে সহায়তা করার জন্য নাগরিক সমাজকেও আহ্বান জানিয়েছেন উপ–মুখ্যমন্ত্রী।সমীক্ষায় উঠে এসেছে, ২৯ শতাংশ পরিচারিকারা যৌন হেনস্থার শিকার এবং এর মধ্যে ২০ শতাংশ পুলিসের কাছে অভিযোগ জানিয়েও কোনও ফল পায়নি। মারাঠা ফ্যারেল সংগঠন জানিয়েছে, ‘‌শহরের সমাজে পরিচারিকারা এক বড় ভূমিকা পালন করে। কিন্তু এই রিচারিকাদের মধ্যে মাত্র কিছুজনই তাঁদের অধিকার পেতে সফল হয়েছেন। প্রচলিত নীতিগুলি পরিচারিকাদের ক্ষেত্রে কার্যকর হয় না কারণ তাঁদের কখনই শ্রমিকের আওতায় ধরা হয় না। তাঁদের দারিদ্রতা, শিক্ষার অভাব এবং সচেতনতা না থাকায় অনেকেই বাড়ির মালিকের যৌন হেনস্থার সম্মুখীন হন।’‌ তবে সেটা যাতে আর না হয় তার জন্যই এই সংগঠন পরিচারিকাদের নিয়ে কাজ করবেন বলে ঠিক করেছেন।  বিদ্যজনেদের একাংশের প্রশ্ন তাহলে বিজেপি সরকারে এসে মানুষের সুরাহা কি হলো ? এই দিন দেখবার জন্য কি মানুষ বিজেপিকে এনেছিল ?



তথ্য কৃতজ্ঞতা স্বীকার "আজকাল "

No comments:

Post a Comment

loading...