Friday, 21 September 2018

অসমের রাষ্ট্রবিজ্ঞানের বই কাঠগড়ায় তুললো প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে

ওয়েব ডেস্ক  ২১শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ : সত্যি কখনো চাপা থাকেনা , এই প্রবাদটা আমরা ছোট বেলার থেকে শুনে আসছি ।সে যেই সরকারে  আসুক বা ইতিহাসকে বিকৃতি করার চেষ্টা করুক বাস্তবতা বাস্তবই থাকে ।এমনটাই মনে করেন বিদ্যজনেদের একাংশ । একদা বিজেপি শাসিত অসমে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে কলুষিত করা হল রাষ্ট্রবিজ্ঞান বয়ে ।


সেই বইতে লেখা হয়েছে ২০০২ সালের গুজরাট দাঙ্গার সময় নীরব ছিলেন তৎকালিন মুখ্যমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তাঁর এই নীরব থাকার জন্য চূড়ান্ত সমালোচনাও হয়েছিল তখন। বইটি প্রকাশিত হয়েছিল অসমে। তাই এই ঘটনায় বইটি যিনি লিখেছেন এবং আর দু’‌জন, মোট তিনজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছে অসম পুলিস। এই ঘটনা সামনে আসতেই চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে অসম জুড়ে। পুলিস সূত্রে খবর, বইটি অসমিয়া ভাষায় লেখা হয়েছে। সেই বইটির ৩৭৬ পাতায় লেখা রয়েছে গুজরাট জুড়ে যে দাঙ্গা হয়েছিল তাতে সবরমতী এক্সপ্রেসের গোধরা রেল স্টেশনে ৫৭ জন মানুষ মারা গিয়েছিলেন। তখন গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী অধুনা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি নীরব দর্শকের ভূমিকা পালন করেছিলেন। এই বইয়ের তিনজন লেখকের নাম হল, দুর্গাকান্ত শর্মা (‌আর্য বিদ্যাপীঠ কলেজের প্রাক্তন বিভাগীয় প্রধান)‌, রফিক জামান (‌গোয়ালপাড়া কলেজের প্রাক্তন বিভাগীয় প্রধান)‌ এবং মানস প্রতীম বড়ুয়া (‌দক্ষিণ কামরূপ কলেজের বিভাগীয় প্রধান)‌। এঁদের মধ্যে বেশ কয়েকবছর আগে প্রয়াত হয়েছেন দুর্গাকান্ত শর্মা। ২০১১ সাল থেকে এই বই অসমের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলিতে চলছে। লেখকদের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন সৌমিত্র গোস্বামী এবং মানবজ্যোতি বোরা। অধ্যাপকদের একটা অংশ বলছে , এনসিইআরটি বইয়ের থেকে অনুবাদ করেই এই বইটি ছাপা হয়েছিল , অতএব এটা বলাই যায় , বিজেপির তরফ থেকে কেউকি , এটা সংশোধন করার প্রয়োজন মনে করলেননা ? না , তারা নিজেরাও জানতেন যা লেখা আছে সবই সত্যি । আগামী দিনে অসম বিজেপি যে উত্তাল হবে বলাই বাহুল্য ।




তথ্য কৃতজ্ঞতা স্বীকার "আজকাল "

No comments:

Post a Comment

loading...