Sunday, 23 September 2018

কেন্দ্রীয় আবাস যোজনায় দেশে সেরার স্বীকৃতি পেল,বাংলার মুর্শিদাবাদ

ওয়েব ডেস্ক  ২৩ শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ : মাত্র দুমাস আগেই বিশ্ব-খ্যাত  বাংলার কন্যাশ্রীতে রাজ্যে দ্বিতীয় স্থান অধিকার করার পর ,এইবার প্রধান মন্ত্রী আবাস যোজনায় দেশের শীর্ষ স্থানের শিরোপা পেল মুর্শিদাবাদ জেলা।"তৃণমূল সরকার উন্নয়নের কাজে বিশ্বাসী" এই কথাটি শুধুমাত্র কথায় নয় বিভিন্ন সময়ে প্রকৃত উন্নয়নের মধ্যদিয়ে বিরোধীদের নানান কুৎসা আর অপপ্রচারের জবাব দিয়েছেন মমতা ব্যানার্জী। পিছিয়ে পড়া মুর্শিদাবাদ যে এইবার উন্নয়নে বাংলার মুখ হয়ে উঠতে চলেছে তা আর বলার অপেক্ষা রাখেনা ।

 ২০১৮-২০১৯ আর্থিক বর্ষে জেলার ৪৫৩০১ টি গৃহ নির্মানের লক্ষমাত্রার মধ্যে ৪৫২১৭ টি বাড়ি তৈরীর কাজ  ইতিমধ্যে সম্পূর্ণ সম্পন্ন করেছে মুর্শিদাবাদ জেলা । এই কারণে কেন্দ্রীয় গ্রামীণ উন্নয়ন মন্ত্রক পুরস্কৃত করেছে মুর্শিদাবাদকে। কয়েক দিন আগে দিল্লির বিজ্ঞান ভবনে মুর্শিদাবাদের অতিরিক্ত জেলা শাসকের হাতে পুরস্কার তুলে দেন গ্রাম উন্নয়ন দপ্তরের কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নরেন্দ্র শিং তোমর ।  রাজ্যগত ভাবে পশ্চিমবঙ্গ দ্বিতীয় হলেও , জেলার ভিত্তিতে মুর্শিদাবাদ দেশের মধ্যে সেরার শিরোপা ছিনিয়ে এনেছে, তার মধ্যে বেলডাঙা ১ ও ২ নম্বর ব্লক এবং বহরমপুর অনেক খানি এগিয়ে রয়েছে । কেন্দ্রীয় উন্নয়ন মন্ত্রক এই মানের বিচার করে থাকে সাধারণত ৫ টি ক্যাটাগরিতে। যেমন -আবাস যোজনার সার্বিক কাজের মান, বাড়ি তৈরির সংখ্যা ,রাজমিস্ত্রিদের প্রশিক্ষন, প্রকল্প ও যোজনার সমন্বয় সাধন এবং যোজনা ও উপভোক্তাদের আধার সংযুক্তিকরণ । আর্থিক বৎসরের মধ্যবর্তী সময়ে লক্ষমাত্রা পূরণের গতি স্থিমিত হয়ে পড়লেও ,শেষ পর্যন্ত বর্তমানে সম্ভবকে অসম্ভব করে ,দেশের মধ্যে সেরার সেরা হয়ে দেখিয়ে দিয়েছে মুর্শিদাবাদ জেলা প্রশাসন। প্রতি মাসে উপভোক্তাদের বাড়ীতে গিয়ে তদারকি,সমস্যা খুঁজে সমাধানের পথ বের করা,ব্যাংক কর্তৃপক্ষের সাথে নিয়মিত যোগাযোগ ও আলোচনার মধ্যে দিয়ে ,উপভোক্তাদের ঠিকঠাক আর্থিক যোগানের সুব্যবস্থা করা ও বিভিন্ন দুর্নীতি প্রতিরোধ করে কাজকে ত্বরান্বিত  করাই হল এই চূড়ান্ত সাফল্যের চাবিকাঠি, বলে জানান -মুর্শিদাবাদের জেলা শাসক পি. উলগানাথন।




No comments:

Post a Comment

loading...