Friday, 5 October 2018

শ্লীলতাহানির অভিযোগে গ্রেফতার অমিত, মুকুল, লকেট ঘনিষ্ট দক্ষিণ কলকাতা বিজেপি সম্পাদক

ওয়েব ডেস্ক ৫ই  অক্টোবর  ২০১৮ :-  গত ৪ই অক্টোবর বিজেপি নেতা ধনঞ্জয় সিং লিফ্ট দেবার নাম করে এক স্বামীহারা মহিলাকে নিজের গাড়িতে তোলেন। গাড়িতে ওঠার পরই ওই মহিলাকে নোংরা গালি দিতে দিতে তাঁর গোপনাঙ্গে জোর করে স্পর্শ করেন এবং বারংবার শ্লীলতা হানি করে ধনঞ্জয়। ঘটনার খবর পেয়েই কালীঘাট থানা নির্যাতিতাকে উদ্ধার করেন ও এই বিজেপির নেতাকে গ্রেফতার করেন। প্রসঙ্গত, এই বিজেপি নেতার ফেসবুক প্রোফাইলে বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ, বিজেপি নেতা মুকুল রায়, বিজেপি মহিলা মোর্চার সভা নেত্রী লকেট চ্যাটার্জীর সাথে বিভিন্ন কার্যক্রমের ছবি রয়েছে । তাই বিজেপির অন্ধর মহলে যথেষ্টই প্রভাবশালী তা নির্দ্ধিধায় বলা যায়। 



নির্যাতিতার মহিলার অভিযোগ , ধনঞ্জয় সিংহ তার গাড়ির মধ্যে মহিলার শরীরের গোপন জায়গায় বারং বার হাত দিতে থাকেন , এবং মহিলাকে চুম্বন  করতে থাকে । এই সব ঘটনা ঘটেছে মহিলার ইচ্ছের  বিরুদ্ধে ,এবং কোনো ভাবেই বিধবা মহিলাটির কোনো সম্মতি ছিলোনা । যতবার মহিলাটি ধনঞ্জয় সিংহকে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করেন ততবারই তিনি নিজের কু-অভিসন্ধি চরিথার্থ  করার জন্য  শ্লীলতাহানি করতে থাকেন যেটা এক কথায় নক্কার জনক । ধনঞ্জয় বাবুর গাড়িতে , মহিলা যতই কাকুতি মিনতি করেন ততই ধনঞ্জয় তাকে ভয় দেখাতে থাকেন , এবং বারংবার তার  গোপনাঙ্গে জোর করে হাত দিতে থাকেন  ।ধনঞ্জয় বাবুর গাড়ি ও ৩টি মোবাইল ফোনে বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে ।

পশ্চিমবাংলা কখনোই বিজেপি শাসিত উত্তরপ্রদেশ নয় অথবা শিবরাজ চৌহ্বান মধ্যপ্রদেশ নয় যেখানে একের পর এক নারী নির্যাতনের ঘটনা ঘটে যাবে আর পুলিশ ঠুঁটো জগন্নাথ হয়ে  বসে বসে দেখবে । এর আগেও রাজ্য আইন শৃঙ্খলা রক্ষার ক্ষেত্রে দলীয় রং বিচার করেনি রাজ্য প্রশাসন , কালীঘাট থানার এই তৎপরতা আবার সে কথায় আবার জানান দিল।

No comments:

Post a Comment

loading...