Saturday, 13 October 2018

সুপ্রিম কোর্টের রায়কে তুলোধোনা করে , "মহিলাদের চিরে ফেলা উচিত । " বললেন বিজেপির জনপ্রিয় নেতা

ওয়েব ডেস্ক ১৩ই অক্টোবর ২০১৮:বিজেপি নেতা মন্ত্রীরা কি নিজেদের সর্বোচ্চ আদালতের উর্ধে বলে নিজেদের মনে করছেন ? ঘটনা প্রবাহ যে দিকে গড়াচ্ছে তাতে তো তাই বলেই মনে হচ্ছে , অন্তত বিদ্যজনেদের একাংশের এটাই অভিমত । লাগামহীন কথা বার্তা তো আগেই ছিল এবার নব তম সংযোজন বিজেপি নেতা তথা অভিনেতা কোল্লাম থুলাসী।
                                

"মহিলাদের দুভাগে চিরে ফেলা উচিত। একটা অংশ দিল্লিতে ও অপর অংশ কেরালার মুখ্যমন্ত্রীর কাছে পাঠানো উচিত" - সুপ্রীম কোর্টে কেরলের শবরীমালা মন্দিরে সব বয়সের মহিলাদের প্রবেশাধিকারের অনুমতি প্রসঙ্গে এমনই বর্বর ভাষায় মহিলাদের আক্রমণ করলেন বিজেপি নেতা তথা অভিনেতা কোল্লাম থুলাসী।কেরলের চাভারাতে শবরীমালা মন্দিরের প্রাচীন প্রথা রক্ষা করার জন্য একটি র়্যালির আয়োজন করে বিজেপি শাসিত এনডিএ জোট। সেখানেই মহিলাদের এমন কুৎসিত ভাষায় আক্রমণ করেন তিনি।এখানেই থেমে থাকেননি মালায়ালাম এই অভিনেতা। শীর্ষ আদালতের যে চারজন বিচারপতি এই মামলার রায় ঘোষণা করেছিলেন তাঁদের 'নির্বোধ' বলেও সম্বোধন করেছেন তিনি। তিনি আরও বলেন, "বৃদ্ধা মায়েদের শবরীমালা মন্দিরের এই বিচারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করা উচিত।"অভিনেতা যখন মহিলাদের উদ্দেশ্যে এই মন্তব্য করছিলেন তখন মঞ্চে কেরলের বিজেপি সভাপতি পি এস শ্রীধরণ ও আর এক বিজেপি নেতা উপস্থিত ছিলেন। দর্শকরাও অভিনেতার এই মন্তব্যকে হাততালি দিয়ে সমর্থন করেছিলেন।এরপর সাংবাদিকরা বিজেপি রাজ্য সভাপতিকে অভিনেতার এই মন্তব্য সমর্থন করেন কিনা জিজ্ঞেস করলে সভাপতি বলেন, "এটি একটি গণ প্রতিবাদ। বহু জনগণ এতে অংশ নিয়েছে। তাদের মধ্যে কে কী বলবে আমরা সেবিষয়ে কিছু জানিনা। থুলাসী আয়াপ্পা দেবীর ভক্ত, তাই তিনি একথা বলেছেন।" বিদ্যজনেদের একাংশের দাবি ভাষায় আরও সংযম থাকা উচিত , রাজনীতিকদের , প্রত্যেকটা মানুষেরই একটা মূল্য বোধ আছে , সেখানে আঘাত হানাতা একদম উচিত নয় বলেই মনে করেন বিদ্যজনেদের একাংশ ।

No comments:

Post a Comment

loading...