Sunday, 7 October 2018

ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় , চড়া মাশুল দিতে হল বিহারের ছাত্রীদের , সর্বত্র নিন্দার ঝড়

ওয়েব ডেস্ক ৭ই অক্টোবর ২০১৮ :ইভটিজিং ও কটুক্তির প্রতিবাদ করার চড়া মাশুল দিতে হল ৩৪  জন ছাত্রীকে৷ তাদের উপর চড়াও হয়ে বেদম মারধর করে দুষ্কৃতীরা৷ মারের চোটে গুরুতর আহত অবস্থায় তাদের প্রত্যেককে হাসপাতালে ভরতি করতে হয়৷ ঘটনাটি বিহারের সুপৌল জেলার৷ পুলিশ জানিয়েছে, কস্তুরবা স্কুলের ছাত্রীদের অভিভাবকরা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।


সেই অভিযোগের ভিত্তিতেই স্থানীয় কয়েকজন যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। পুলিশ সূত্রে খবর, দীর্ঘদিন ধরেই স্থানীয় যুবকরা নানা ভাবে হেনস্থা করত ছাত্রীদের। শনিবার ফের একই রকম ঘটনা ঘটে।  কিন্তু এ বার রুখে দাঁড়ায় ছাত্রীরা।  প্রতিবাদ করে তারা। যুবকদের সঙ্গে ছাত্রীদের বচসা বেঁধে যায়। হাতাহাতিও শুরু হয়। জানা গিয়েছে, কয়েক জন যুবককে ছাত্রীরা চড়–থাপ্পড়ও মারে।  তার পরেই মারমুখী হয়ে ওঠে যুবকরা।  স্থানীয় আরও যুবকদের ডেকে এনে তারা স্কুলের ভিতর ঢুকে পড়ে। শিক্ষক ও ছাত্রীদের হুমকি দিতে শুরু করার পাশাপাশি ছাত্রীদের মারধরও করা হয়। ছাত্রীদের অভিযোগ, তাদের মধ্যে অনেকের হাতেই ছিল অস্ত্র।স্কুল কর্তৃপক্ষের অভিযোগ, ছাত্রী ও শিক্ষকদের উপর হামলা চালায় ওই যুবকরা।  মারধরও করে।পুলিশ জানিয়েছে, দিন দিন ওই এলাকায় স্থানীয় ও বহিরাগত যুবকদের দৌরাত্ম্য বাড়ছে।  স্কুলের ভিতর ঢুকে তারা হামলা চালিয়েছে।বিদ্যজনেদের একাংশের মত বিজেপি ক্ষমতা আসার পরই এলাকার কিছু ছেলে নিজেদের মাতব্বর ভাবতে শুরু করে , কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে কেন ? এই সব অল্প বয়সী ছেলেরা বিহার কে রাম রাজত্ব হিসেবে মনে করছে ? প্রশ্ন এখন একটাই ।


তথ্য  কৃতজ্ঞতা স্বীকার " আজকাল    "

No comments:

Post a Comment

loading...