Monday, 29 October 2018

মুজাফ্ফরপুরের পর বিহারেরই বেগুসরাইয়ে ছাত্রীদের অস্বাভাবিক যৌন সংসর্গে লিপ্ত করতে বাদ্য করা হল

ওয়েব ডেস্ক ২৯শে অক্টোবর, ২০১৮: মুজাফ্ফরপুরের ঘটনা এখনো মানুষের স্মৃতিতে দুঃস্বপ্নের মতো বিচরণ করছে , তার মধ্যেই এক নারকীয় ঘটনার সাক্ষী থাকল গোটা দেশ , এবারও সেই বিজেপি শাসিত বিহারে ।প্রসঙ্গত  বুধবার বিহারের কালীস্থান চওক থেকে  চার ছাত্রীকে গোলু কুমারের নেতৃত্বে অপহরণ করে সাত দুষ্কৃতী। ছাত্রীরা সবাই স্থানীয় কুশওয়াহা হস্টেলের আবাসিক।

প্রত্যেকেরই বয়স ১৮–২১ বছরের মধ্যে। অপহরণের পর তাঁদের বেগুসরাই ডিভিশনাল জেলের পিছনে নিয়ে গিয়ে জোর করে মদ্যপান করিয়ে দিনভর অস্বাভাবিক যৌন সংসর্গে লিপ্ত হতে বাধ্য করা হয় । পুরো ঘটনার ভিডিও তোলা হয়। ছাত্রীরা আপত্তি জানালে একজনের পায়েও গুলি করে দুষ্কৃতীরা এবং পুলিসকে জানালে ভিডিও ভাইরাল করে দেওয়ার হুমকি দেয় গ্লু কুমার সহ তার সাগরেদরা ।ছাত্রীরা পুলিশকে জানায় জল পরিশোধন কারখানার মালিক গোলু কুমারের কাছ থেকে জল কিনতে আপত্তি জানানোর জন্যই তাঁদের এভাবে নিগ্রহ করা হয়েছে। প্রথমে পুলিসকে না বললেও পরে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন নিগৃহীতারা। বৃহস্পতিবার প্রথমে গোলু কুমারকে গ্রেপ্তার করে পুলিস। এরপর শনিবার ছাত্রীদের নির্যাতনের ভিডিও ফুটেজ ভাইরাল করে দেয় গোলুর সঙ্গীরা। অভিযোগ পেয়ে তদন্তে নেমে শনিবার রাতের মধ্যেই অজয় কুমার, বিনোদ কুমার, রাজা কুমার, রোহিত কুমার, গণেশ কুমার এবং রাহুল কুমারকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে জানান  এসএইচও ত্রিলোক কুমার মিশ্র। নির্যাতিতাদের সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।তাদের অবস্থা অবনতি হয়নি বলে সূত্রের খবর ।বেগুসরাই এর জেলার পোখারিয়ায় টাউন থানা এলাকায় যে এরকম ঘটনা ঘটতে পারে এলাকার মানুষই বিশ্বাস করতে পারছেননা ।তারা এক বাক্যে দোষীদের শাস্তির দাবি জানান ।বিদ্যজনেদের একাংশ বিহারের বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে সোচ্ছার হয়েছেন । তারাও দোষীদের কঠোরতম শাস্তি দাবি করেন ।

No comments:

Post a Comment

loading...