Monday, 19 November 2018

যোগীর উত্তপ্রদেশে এক শিক্ষকের বর্বরিচিত আচরণ সবাইকে চমকে দিল , সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড়

ওয়েব ডেস্ক ১৯ই নভেম্বর ২০১৮ :পালা বদল হওয়ার পর উত্তরপ্রদেশের উন্নতি কি হয়েছে সেটা যোগী আদিত্যনাথ বলতে পারবেন কিনা সন্দেহ আছে তবে তার রাজ্যের শিক্ষকদের  একাংশ নিজেদের যে  স্বৈরাচারী মনে করছেন এ বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই ।না হলে একটা দুধের শিশুর সাথে এরকম নির্মম কাজ করতে পারে ? সিসিটিভি ফুটেজ আসার পর এখন এটাই ভাইরাল হচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ায় যা নিয়ে যোগী প্রশাসন মুখ লুকোবার জায়গা পাচ্ছেনা ।প্রসঙ্গত একটি দ্বিতীয় শ্রেণিতে পরা ছোট্ট ছেলেকে  বাড়িতেই পড়াতে আসতেন এক শিক্ষক।



কিন্তু যতনা পড়াতেন তার থেকে বেশি বর্বরোচিত আচরণ এই গৃহ শিক্ষককে কুখ্যাত করেছে ,পড়ানোর নামে যে বর্বর আচরণ গৃহশিক্ষক ওই ছোট্ট শিশুর উপর করতেন সেটা দেখে শিউরে উঠেছিলেন সকলেই। বাড়িতে লাগানো সিসিটিভি ক্যামেরা ফুটেজ চেক করতে গিয়ে শিশুটির মা–বাবা যা দেখলেন, তাতে তাঁরাই কান্নায় ভেঙে পড়েছিল গোটা পরিবার । ভিডিওয় দেখা গিয়েছে ছোট্ট ওই শিশুকে পড়ানোর নামে অকথ্য অত্যাচার চালাচ্ছেন গৃহশিক্ষক। জুতো চটি দিয়ে মার তো চলতই। এমনকী কিল, চড়, ঘুষিও মারত সে।  এখানেই শেষ নয় কাঁচের কোনও ধারালো বস্তু অথবা ধাতব কোনও সূচালো জিনিস দিয়ে হাতে এবং আঙুলে আঘাত করত শিক্ষক। শিশুটি যন্ত্রণায় ছটফট করলে এক গ্লাস জল খেতে দিয়ে হাসতে বলা হত। শিশুটির আঙুলও কামড়ে দিতে দেখা গিয়েছে শিক্ষককে। সেই সিসিটিভি ফুটেজটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। বিদ্যজনেদের একাংশের দাবি , যে করেই হোক পলাতক এই শিক্ষককে গ্রেফতার করতেই হবে , এবং দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে ।শিক্ষক হলেন পিত মাতার সমতুল্য , তার যদি এরকম আচরণ হয় তাহলে কোন ভরসায় বাচ্ছাদের স্কুলে পাঠাবে অভিভাভকরা ? যদিও এই কথাটা  উত্তরপ্রদেশের মতো বিজেপি শাসিত রাজ্যেই  জন্যই প্রযোজ্য ।

No comments:

Post a Comment

loading...