Friday, 16 November 2018

জাল শংসাপত্র দেখিয়েই নির্বাচনে জয়লাভ,এবি ভি পি থেকে বরখাস্ত হতেই হল অঙ্কিভ বৈশ্যকে

ওয়েব ডেস্ক ১৬ই নভেম্বর ২০১৮ : দীর্ঘ টালবাহানার পর এবি ভি পি থেকে অপসারণ করা হল অঙ্কিভ বৈশ্যকে ।এখন কথা উঠছে কি করে অঙ্কিভ বৈশ্য এই জাল মার্কশীট জোগাড় করলেন আর কোন গডফাদারের হাত ধরে দিল্লি বিশ্ব বিদ্যালয়ের মতো জায়গায় পড়ার সুযোগ পেয়েছিলেন  ?এতে বিজেপির যে আরো অস্বস্তি বেড়েছে সেটা বলাই বাহুল্য ।ABVP-র জাতীয় মিডিয়া আহ্বায়ক মণিকা চৌধুরী বৈশ্যের পদত্যাগপত্র জমা দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।



তিনি বলেছেন, "ABVP পরিষ্কার ভাবে জানিয়ে দিচ্ছে, জমা দেওয়া সমস্ত তথ্য পরীক্ষা করে দেখার সম্পূর্ণ অধিকার আছে DU-র। DU-র এই স্বচ্ছতা বজায় রাখতে, ABVP অঙ্কিতকে পদত্যাগ করতে বলেছে। DU যতদিন তদন্ত করবে ততদিন সংগঠনের সমস্ত দায়িত্ব থেকে অঙ্কিভকে সরিয়ে রাখা হবে।"অঙ্কিভ বৈশ্য তামিলনাড়ুর থিরুভাল্লুভার বিশ্ববিদ্যালয়(TU)-এর স্ট্যাম্প দেওয়া একটি BA-র সংশাপত্র সভাপতি পদে দাঁড়ানোর আগে দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ে জমা দিয়েছিলেন। গত জুলাইতে বুদ্ধিস্ট স্টাডিজে MA করার জন্য ভর্তি হয়েছিলেন অঙ্কিভ, একথাও তিনি নিশ্চিত করেছিলেন দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ে। গত ১৫ই সেপ্টেম্বর নির্বাচনে জিতে দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদের সভাপতি হন তিনি।কিন্তু নির্বাচনের পরেই ছাত্র সংসদের বিরোধী দল NSUI দাবি করে অঙ্কিভের জমা দেওয়া সমস্ত সংশাপত্র নকল। এরপর তদন্ত শুরু হয়। যে বিশ্ববিদ্যালয়ের জাল শংসাপত্র অঙ্কিভ জমা করেছেন সেই বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্টারও এ বিষয়ে তামিলনাড়ুর উচ্চশিক্ষা দপ্তরে লিখিত বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছেন, এই বিশ্ববিদ্যালয় বা এর অন্তর্গত কোনো কলেজে অঙ্কিভ বৈশ্যের নাম নথিভুক্ত নেই।বিদ্যজনেদের একাংশের অভিমত স্মৃতি ইরানিকে নিয়ে নাকানি চোবানি খাওয়ার পর বিজেপি যেরকম বেকায়দায় পরে ছিল , ঠিক সেই রকমই অবস্থা এ ক্ষেত্রেও হয়েছে ।তবে এবি ভি পির উচিত ছিল সব কিছু তথ্য জেনে একজনকে ওরকম উচ্চপদে বসানো ।

No comments:

Post a Comment

loading...