Thursday, 22 November 2018

উত্তরাখণ্ডে জোর ধাক্কা বিজেপির , কেন্দ্রীয় মন্ত্রীদের কপালে চিন্তার ভাজ

ওয়েব ডেস্ক ২২শে নভেম্বর,২০১৮ : বাংলায় একটা  প্রবাদ  আছে  "সময় যখন খারাপ পরে তখন চামচিকেতেও লাথি মারে।"এখানে কেউ লাথি মারছে না, শুধু বিজেপিকে ভোটটা দিচ্ছে না । এবং এই ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরাখণ্ডের পুরো ভোটে ।যা নিয়ে রাতের ঘুম কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের উড়ে দিলেও অবাক হওয়ার কিছুই থাকবেনা ।



উত্তরাখণ্ডের পুরভোটে বিশাল ধাক্কা বিজেপির। পাঁচ রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনের ভোট প্রক্রিয়া চলাকালীন এই ফলাফল বিজেপির পক্ষে অশনি সংকেত বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল। আগামী ১১ ডিসেম্বর পাঁচ রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশের আগেই এই ধাক্কায় অনেকটাই ব্যাকফুটে বিজেপি।গত একবছর আগে উত্তরাখণ্ডের বিধানসভা নির্বাচনে ৭০ আসনের মধ্যে বিজেপির ঝুলিতে গেছিলো ৫৭ আসন। কিন্তু গত রবিবার হওয়া রাজ্যের পুর নির্বাচনের ফলাফলে বিজেপির জমি হারানোর ছবি স্পষ্ট।রাজ্যের ৮৪টি পুরসভা এবং ৭টি মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশন, ৩৯টি মিউনিসিপ্যাল কাউন্সিল এবং ৩৮টি গ্রাম পঞ্চায়েতের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিলো গত রবিবার। উল্লেখযোগ্য ভাবে প্রায় ৬৯% মানুষ এই ভোটে অংশ নিয়েছিলেন। মঙ্গলবার থেকে শুরু হওয়া গণনার ফল প্রকাশিত হয় বুধবার। প্রকাশিত হওয়া ফলাফল অনুসারে, ৫০টি পুরসভার দখল নিয়েছে রাজ্যের বিরোধীরা। বিজেপির পক্ষে গেছে মাত্র ৩৪টি পুরসভা।রাজ্যর মুসৌরি, উত্তরকাশীর জেলাতে বিজেপি কার্যত নিশ্চিহ্ন। দেরাদুনে কংগ্রেস বিজেপির মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে বিজেপিকে পেছনে ফেলে এগিয়ে গেছে কংগ্রেস। কংগ্রেস দেরাদুনে জিতেছে ১৫টি ওয়ার্ডে, নির্দল প্রার্থীরা এখানে জিতেছেন ৫টি ওয়ার্ডে। বিজেপি পেয়েছে ১৪ টি আসন। অন্যদিকে চম্পাবতে জয়ী হয়েছে কংগ্রেস প্রার্থী। সেখানে বিজেপি প্রার্থী তৃতীয় স্থান পেয়েছেন।রাজ্যের ১৩টি জেলার মোট ১০৬৪টি ওয়ার্ডের মধ্যে ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে ১০৬৩টির। যার মধ্যে বিজেপি বিরোধীরা সম্মিলিত ভাবে পেয়েছেন – ৭৪০টি আসন। অন্যদিকে বিজেপি পেয়েছে ৩২৩ টি আসন।বিদ্যজনেদের একাংশের অভিমত ২০১৯ লোকসভা ভোটে বিজেপির ফায়ার আসাটা কঠিন থেকে কঠিন তম হচ্ছে , যেই ভাবে মানুষ আস্থা দেখাচ্ছে বিরোধী দল গুলোতে তাতে বিজেপির পক্ষে একদম ভালো খবর নয় ।

No comments:

Post a Comment

loading...