Saturday, 24 November 2018

দলীয় নেত্রীকেই শ্লীলতাহানির অভিযোগ বিধায়কের বিরুদ্ধে , মে-টু তে ওঠায় আরো অস্বস্তি বিজেপির

ওয়েব ডেস্ক ২৪ শে নভেম্বর,২০১৮ :মানুষের মাথায় কাঁঠাল ভাঙতে গিয়ে নিজেদের মাথায় কাঁঠাল ভেঙে পড়তে শুরু করল ।এক সময়কার প্রবাদ আজও  বিদ্যমান । কিছুদিন আগে নিজেদের নেতা , কর্মীকে সংবাদমাধ্যমের সামনে দলকে কালিমালিপ্ত  থেকে দূরত্ত্ব বজায় রাখতে বলেছিলেন শ্রীযুক্ত নরেন্দ্র মোদী তখন বিতর্ক বিবাদ থেকে দূরে থাকাটা হয়তো কোনো কোনো বিজেপির নেতা শ্রেয় মনে করেনি , যদি করতেন তাহলে মী-টু তে দলকে অস্বস্তিতে পড়তে হতনা ।


প্রসঙ্গত,দলীয় বিধায়কের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ আনলেন বিজেপির মহিলা সংগঠনের নেত্রী। ধানবাদের বিজেপি বিধায়ক দুল্লু মাহাত তাঁকে অশালীন ভাবে স্পর্শ করেছেন এমনই অভিযোগ সংগঠনের মহিলা শাখার নেত্রীর। দলের শীর্ষ নেতৃত্বের কাছে অভিযোগ জানিয়েও কোনও লাভ হয়নি। তাই অপমানে থানার সামনে গিয়ে নিজের গায়ে আগুন দিয়ে আত্মঘাতী হওয়ার চেষ্টা করেছিলেন নেত্রী। গত ৩১ অক্টোবর দলীয় বিধায়কের বিরুদ্ধে থানায় এফআইআর করেছিলেন তিনি। কিন্তু তারপরেও কোনও পদক্ষেপ করেনি পুলিস। সুযোগ বুঝে কংগ্রেসের  সোশ্যাল মিডিয়া সেলের ইনচার্জ ময়ূর শেখর ঝা আসল কাজটি করে দিয়েছেন  । তিনি প্রথম বিজেপি মহিলা নেত্রী গায়ে আগুন দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টার ভিডিওটি টুইট করেছিলেন। তাতে দেখা গিয়েছে নেত্রী কাঁদছেন আর চিৎকার করে বিজেপি বিধায়কের নাম নিয়ে অভিযোগ করছেন। অপত্তিকরভাবে নেত্রীর কোমরে এবং গালে হাত দিয়েছেন বিজেপি বিধায়ক দুল্লু মাহাত, এমনই অভিযোগ করছেন। এমনকী পুলিসকে রীতিমত হুঁশিয়ারি দিয়ে মহিলা নেত্রী জানিয়েছেন, যদি বিধায়কের বিরুদ্ধে কোনও রকম পদক্ষেপ করা না হয় তাহলে তিনি মুখ্যমন্ত্রীর দপ্তরে গিয়ে অভিযোগ জানাবেন। সেখানে কাজ না হলে সোজা প্রধানমন্ত্রীর দ্বারস্থ হবেন।  তিনি আরও অভিযোগ করেছেন, পুলিসের কাছে ধর্ষণের অভিযোগ জানানোয় তাঁকে এবং তাঁর স্বামীকে ক্রমাগত হত্যার হুমকি দেওয়া হচ্ছে। বিদ্যজনেদের একাংশের অভিমত বিরোধীদের দিকে আঙ্গুল তুলতে তুলতে বিজেপির দিকেই যে তাদের চারটে আঙ্গুল নিক্ষেপ করছিল সেটা হয়তো ভুলে গিয়েছিল বিজেপি নেতৃত্ব।যদি খেয়াল করতেন বিজেপির স্বনামধন্য লোকেরা তাহলে পার্টিটাকে এতটা বিড়ম্বনার মধ্যে পড়তে হতনা ।

No comments:

Post a Comment

loading...