Saturday, 3 November 2018

এবার শিবরাজ সিং চৌহানের জামাই বাবু কে ভাঙিয়ে নিয়ে এলো কংগ্রেস

ওয়েব ডেস্ক ৩রা নভেম্বর ২০১৮ :যতই মধ্যপ্রদেশের বিধান সভা নির্বাচন এগিয়ে আসছে ততই যেন মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিংহ চৌহানের খারাপ সময় ঘনীভূত হচ্ছে । সূত্রের খবর এখন তার ত্রাহি ত্রাহি অবস্থা কারণ তারই দলে থাবা বসিয়েছে কংগ্রেস , যার আঁচ তার পারিবারিক জীবনেও পড়েছে ।  প্রসঙ্গত কংগ্রেসে যোগ দিয়েছেন তাঁর জামাইবাবু সঞ্জয় সিং। রাহুল গান্ধীর মধ্যপ্রদেশ সফরের পরেই রাজ্যের বড় কোনও বিজেপি নেতা কংগ্রেসে যোগ দিলেন।

এতে অন্য সমীকরণ দেখছেন রাজনীতিকরা। শনিবার কংগ্রেস নেতা জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া এবং কমলনাথের উপস্থিতিতে কংগ্রেসে যোগ দেন সঞ্জয় সিং। জানা গিয়েছে চৌহ্বানকে বিপাকে ফেলতে তাঁর কেন্দ্র বোধনিতেই সঞ্জয় সিংকে প্রার্থী করছে কংগ্রেস। গৃহযুদ্ধে চৌহ্বানকতে কাবু করার কৌশলেই জোর দিতে চাইছেন সিন্ধিয়ারা। সূত্রের খবর বিধানসভা ভোটে প্রার্থী নির্বাচনে অসন্তোষ প্রকাশ করেই সঞ্জয়ের এই দলবদল। সঞ্জয় অভিযোগ করেছেন, বিজেপি ধীরে ধীরে স্বৈরতান্ত্রিক পথে এগোতে শুরু করেছে। যাঁরা দলের হয়ে কাজ করছে তাঁদের গুরুত্ব না দিয়ে নেতাদের সন্তুষ্ট করতে তাঁদের ছেলেমেয়েদের টিকিট দিচ্ছে। শুক্রবারই মধ্যপ্রদেশ বিজেপির তরফে ১৭৭ জনের প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। সেখানে নাকি বাদ দেওয়া হয়েছে তিন মন্ত্রীকে, এবং  অমিত শাহ এবং নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে বৈঠকের পরেই সেই তালিকায় সিলমোহর পরে বলে ঘনিষ্ট মহলে খবর । শীর্ষ নেতাদের মদতে একাধিক গুরুত্বপূর্ণ নেতার নাম বাদ দেওয়ায় অসন্তোষ প্রকাশ করেছিলেন  সঞ্জয় সিং। রাজনীতিবিদদের একাংশের ধারণা  তাঁকেও টিকিট না দেওয়ারই পরিকল্পনা করেছিল বিজেপি। সেটা আঁচ করতে পেরেই দ্রুত দলবদলের সিদ্ধান্ত নেন সঞ্জয়। এই দলবদলের তালিকায় মধ্য প্রদেশ বিজেপির আরও অনেক নাম রয়েছে বলে শোনা যাচ্ছে। বিদ্যজনেদের একাংশের অভিমত , স্বীজন পোষণ বিজেপিতে আগেও ছিল এখনো আছে ইটা তারই উদাহরণ , এতে মধ্যপ্রদেশে বিজেপির অবস্থা খুব একটা যে ভালো হবেনা এটা তারই নিদর্শন ।

No comments:

Post a Comment

loading...