Saturday, 24 November 2018

অসহিষ্ণুতা নিয়ে সরাসরি কেন্দ্রের দিকে আঙ্গুল তুললেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জি

ওয়েব ডেস্ক ২৪ শে নভেম্বর,২০১৮ :যেভাবে মোদী সরকার দেশ চালাচ্ছে , তাতে প্রণব বাবু যে আঘাত পেয়েছেন সেটা  তার ভাষণেই পরিষ্কার হয়ে গেল ।অতীতেও তার ইঙ্গিত পাওয়া গিয়েছিল , কিন্তু তিনি যে উদ্বিগ্ন  সেটা আগে কখনো ধরা পড়েনি যেটা তার সাম্প্রতিক কালের ভাষণে ধরা পড়ল ।তিনি তার ভাষণে আরো জানান ভারতের বাজারে টাকার যে অসাম্য তৈরী হয়েছে সেটা কোনো সুখকর খবর নয় ।প্রসঙ্গত দিল্লিতে প্রণব মুখোপাধ্যায় ফাউন্ডেশনের যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত সম্মেলনে প্রণববাবু ফের একবার অসহিষ্ণুতার বিরুদ্ধে সরব হন।


তিনি বলেন, 'যে দেশ গোটা বিশ্বকে বাসুধৈব কুটুম্বকমের মন্ত্রে সহিষ্ণুতা, সৌজন্য ও ক্ষমার পাঠ পড়িয়েছে সেখান থেকেই এখন রোজ অসহিষ্ণুতা ও ক্ষোভ বাড়ছে। রোজ মানবাধিকার হননের খবর আসছে।' প্রণববাবুর কথায়, 'রাষ্ট্র বিবিধতা ও সহিষ্ণুতাকে স্বাগত জানালে বিভিন্ন সম্প্রদায়ের মধ্যে সদ্ভাব বাড়ে। দৈনন্দিন জীবন থেকে ঘৃণার বিষকে সরিয়ে ফেললেন সেখানে শান্তি ও ভাতৃত্ব বসত গড়তে পারে।'তিনি বলেন, 'যে সব দেশে নাগরিকদের আবশ্যিক পরিকাঠামো ও অধিকার নিশ্চিত করতে পেরেছে, যাদের সামাজিক সুরক্ষা অনেক সুদৃঢ়, যেখানে স্বশাসন আছে সেখানে মানুষ অধিকতর সুখী জীবন যাপন করে। যেখানে ব্যক্তিগত সুরক্ষার নিশ্চয়তা আছে ও গণতন্ত্র সুরক্ষিত সেখানে মানুষ বেশি সুখী।' প্রণববাবু বলেন, 'আর্থিক অবস্থা যাই হোক না কেন জনজীবনে শান্তির বাতাবরণ থাকলে সমাজ খুশি থাকে। উলটোটা হলে প্রগতিশীল অর্থব্যবস্থা হলেও দেশে সুখী মানুষ খুঁজে বার করা মুশকিল হবে।'এদিন গুরুনানকের ৫৪৯তম জন্মদিনে তাঁকে স্মরণ করেন প্রণববাবু। বলেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে গুরুনানকের শান্তি ও একতার বাণী মনে করা উচিত। চাণক্যকে মনে করিয়ে প্রণববাবু বলেন, 'প্রজার সুখেই রাজার সুখ।' বিদ্যজনেদের একাংশের দাবি , প্রণব মুখার্জি , চিরকালই অর্থনীতিটা  ভাল বোঝে , যেভাবে টাকার অসাম্যতা বেড়ে চলেছে বিজেপি সরকারের আমলে তাতে পরিস্তিতি যে একেবারেই ঠিক নয় তা আগেই জানিয়েছিল অর্থনীতিবিদরা ।কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হয়নি , এবার দেখা যাক কি হয় ।

No comments:

Post a Comment

loading...