Tuesday, 20 November 2018

সুষমা স্বরাজ পদত্যাগ করছেননা কিন্তু আগামী লোকসভা ভোটে দাঁড়াচ্ছেনও না , জোর জল্পনা

ওয়েব ডেস্ক ২০ নভেম্বর ২০১৮: যতই লোকসভা ভোট এগিয়ে আসছে ততই বিজেপি ছেড়ে এক এক করে চলে যাচ্ছেন নেতা মন্ত্রীরা ।  সুষমা স্বরাজ হয়তো বিজেপি ছাড়বেনা কিন্তু লোকসভা ভোটে না লড়ার সিদ্ধান্ত ইতিমধ্যেই নিয়ে নিয়েছেন , হয়তো ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের ফলাফলটা তার চোখের সামনে ভাসছে ।  এরকমই মনে করছেন বিদ্যজনেদের একাংশ ।  মঙ্গলবার মধ্যপ্রদেশের ইন্দোরে সাংবাদিকদের এই কথা তিনি নিজেই জানিয়েছেন।




এমনকী শারীরিক কারণেই তিনি লোকসভা নির্বাচনে দাঁড়াতে চান না বলে জানান বিদেশমন্ত্রী। এখন সুষমা স্বরাজের বয়স ৬৬। সেখানে এমন কি হল যে, তিনি দেশের নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবেন না তা নিয়ে জোর চর্চা শুরু হয়েছে।এদিকে এদিন তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহানের প্রশংসাও করেছেন। তাঁর দাবি, কংগ্রেস মিথ্যাচার করছে। কেন্দ্রে এবং রাজ্যে ভাল কাজ হয়েছে। ৩৩ কোটি মানুষ ইতিমধ্যেই ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট খুলেছেন। সেখানে এখন কোনও বিকল্প বিরোধী দলকে দেখতে পাওয়া যাচ্ছে না। এমনকী জোটের কোনও নেতা নেই। কংগ্রেস জানে তারা ক্ষমতায় আসতে পারবে না। কারণ কৃষক ঋণ মুকুব, বিদ্যুতায়ন, মেয়েদের বিয়ের ক্ষেত্রে অর্ধেক খরচ সহ–নানা উন্নয়নমূলক কাজ হয়েছে এই সরকারের আমলে।
কিন্তু এরপরও প্রশ্ন উঠছে, আদবানি ঘনিষ্ঠ সুষমা সরে দাঁড়ানোর পিছনে শারীরিক কারণটা আসল কারণ নয়। মোদির বেশ কিছু কাজে সুষমা নিজেই বিরক্ত বলে আর লোকসভায় প্রার্থী হতে চাইছেন না। মুখে সে কথা স্বীকার না করলেও বিজেপি’‌র লৌহপুরুষের পরামর্শেই সরে দাঁড়াচ্ছেন সুষমা। তিনি মুখে ফের কেন্দ্রে নরেন্দ্র মোদির সরকার আসবে বললেও আসলে বাস্তবটা বেশ কঠিন বলেই তাঁর ধারণা। তাই কি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন তিনি?‌ প্রশ্নটা থেকেই যাচ্ছে। ‌‌বিদ্যজনেদের একাংশের অভিমত নরেন্দ্রমোদির স্বেচ্ছাচারিতা হয়তো মেনে নিতে কষ্ট হচ্ছে সুষমা স্বরাজের । কিছু কিছু জায়গায় মোদীর কাজকর্ম হয়তো মন থেকেও মেনে নিতে সেই পাচ্ছেননা । 

No comments:

Post a Comment

loading...