Wednesday, 12 December 2018

বিজেপি হারার খবর আসতেই লাড্ডু তৈরী বন্ধ

ওয়েব ডেস্ক ১২ ই ডিসেম্বর ২০১৮ : ছোট কাল থেকে আমরা একটা কথা  জেনে এসেছি ,মানুষ ভাবে এক হয় আর এক  যেরকম  জনমত সমীক্ষাকে হেলায় উড়িয়ে বিজেপি দাবি করছিল তিন বড় রাজ্যেই নিজেদের গড় ধরে রাখবে। শিবরাজ সিং থেকে বসুন্ধরা রাজে, জয়ের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী ছিলেন। দিনের শেষে শেষ হাসি হাসলেন কিন্তু রাহুলই! প্রতিবারই নির্বাচনে ফল ঘোষণার আগে লাড্ডু তৈরি হয়। এবারও অন্যথা হয়নি। কিন্তু লাড্ডু খাবেন কে?‌


শেষে সংবাদ মাধ্যমের কর্মীদের ডেকে ডেকে খাওয়ানো হল হালুয়া!‌ মোদি জমানায় এই প্রথমবার ভোটের ফলাফলের দিন দেখা গেল এমন শুনশান দপ্তর।গতকালই সদর দপ্তরে তৈরি হয়েছিল প্যান্ডেল। এদিন সকাল থেকেই পিছিয়ে পড়ার খবর আসতে থাকায় হতাশ দলীয় কর্মী, সমর্থকরা আর পা বাড়াননি বিজেপি দপ্তরের দিকে। দুপুর ১১টায় গিয়ে দেখা গেল, দলের সদর দপ্তরে হাতে গোনা কয়েকজন হোলটাইমার বসে আছেন। বিজেপি হেড কোয়ার্টারের বাইরে টিভি চ্যানেলে বিজেপি মুখপাত্ররা কথা বলছেন। হতাশ নেতাদের একেবারে সুর নরম। আপসোস করছেন, অতি আত্মবিশ্বাসী হওয়ার মাশুল দিতে হল দলকে। বিজেপি নেতারা বলার চেষ্টা করলেন, পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা ভোটের ফল কখনও গোটা দেশের জনতার মতামত পাল্টাতে পারে না। তাঁরা বলছেন, বিধানসভা নির্বাচন আর লোকসভা নির্বাচন এক নয়। রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ, ছত্তিশগড় হাতছাড়া হতে চলেছে তা আন্দাজ করতে পেরে বিজেপি–‌র এক মুখপাত্র বললেন, ‘‌আরও কয়েকটা সভা যদি করতেন মোদিজি, তাহলে ফল অন্য রকমও হতে পারত।’‌

No comments:

Post a Comment

loading...