Sunday, 9 December 2018

কথা রাখলেন মমতা, গয়াবাড়ি রেলস্টেশনে অগ্নিকাণ্ডের মাথা গুরুঙ্গের সাথী গ্রেফতার

ওয়েব ডেস্ক ৯ই ডিসেম্বর ২০১৮ : যেকোনো মূল্যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার পাহাড়ে শান্তি বিঘ্নিত হতে দেবেনা। শান্তি বজায় রাখার জন্য তৃণমূল সরকার যে যেকোনো পদক্ষেপ নিতে পারে তার আরও একবার নিদর্শন পাওয়া গেল ।রাজনৈতিক ভাবে বিমল গুরুংকে আগেই নিষ্ক্রিয় করে দেওয়া হয়েছিল , এবার তার সাগরেদকেও পুলিশের জালে তোলা হল ।



প্রসঙ্গত ,গ্রেপ্তার করা হল গুরুং ঘনিষ্ঠ মোর্চা নেতা বিমল দর্জিকে। অনেকদিন থেকে তিনি পলাতক ছিলেন। তাঁর বিরুদ্ধে গয়াবাড়ি রেলস্টেশনে আগুন লাগানো সহ একাধিক মামলা চলছে। গ্রেপ্তারি পরোয়ানাও জারি হয়েছিল।গতবছর পৃথক গোর্খাল্যান্ডের দাবিতে লাগাতার বনধ, আন্দোলন চালায় মোর্চা। ১৫ জুন গয়াবাড়ি রেলস্টেশনে আগুন ধরিয়ে দেয় মোর্চা সমর্থকরা। এছাড়া বহু সরকারি সম্পত্তি নষ্টের অভিযোগ ওঠে মোর্চার বিরুদ্ধে। সরকারি সম্পত্তি নষ্ট, হিংসা সহ একাধিক মামলা চলছে বিমল গুরুং ঘনিষ্ঠ বিমল দর্জির বিরুদ্ধে।সূত্রের খবর অনুসারে গতরাতে তাঁকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। আজ তাঁকে আদালতে পেশ করা হবে বলে পুলিশ । বিদ্যজনেদের একাংশের অভিমত , মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার কখনো কোনো সমস্যায় দীর্ঘায়ত করেন , এটি তারই প্রমান । শুধুমাত্র নিজেদের দলের সংগঠন মজবুত করার জন্য অতীতে  দেখা গেছে কোনো সমস্যারই সমাধান করতেননা বামপন্থীরা , এ ক্ষেত্রেও ব্যাপারটা সম্পূর্ণ উল্টো মমতার আমলে ।

No comments:

Post a Comment

loading...