Thursday, 13 December 2018

শত্রুদের ফাঁসাতে গিয়ে নিজেই প্রাণ হারালেন বিজেপি নেতা , সব জেনেও যোগীর ১০ লক্ষ্য টাকা ক্ষতিপূরণ

ওয়েব ডেস্ক ১৩ ই ডিসেম্বর ২০১৮ : রাজনীতিতে পরিপক্বতা দেখানো বাধ্যতা মূলক , নাহলে উপহাসের মুখে পড়তে হয় ।এটা সবাই জানলেও হয়তো ভারতীয় জনতা পার্টির নেতা প্রত্যুষমণি ত্রিপাঠি জানতেননা , জানলে এভাবে বেঘোরে প্রাণ দিতে হতনা । যেখানে মানুষের সহনাভুতি আশা করতেও পারতেন , সেখানে মরণের পর তার পরিবার লাঞ্ছনা ছাড়া কিছুই পাবেনা ।

এও এক ধরণের যন্ত্রনা । দুষ্কৃতীদের ছুরিতে প্রাণ হারানো ত্রিপাঠি আসলে নিজেই এই ষড়যন্ত্র তৈরী করেছিলো বলে পুলিশের দাবী। পুলিশ আরও জানাচ্ছে ত্রিপাঠি তার কিছু শত্রুদের বিরুদ্ধে প্রতিশোধ নিতে এই ষড়যন্ত্রের ছক কষেন।উত্তরপ্রদেশ পুলিশ সিসিটিভি ফুটেজ ও ফোন কল রেকর্ডিং এর ভিত্তিতে ৫ জনকে গ্রেফতার করেছে। লখনৌ-এর পুলিশ সুপারিটেন্ডেন্ট হরেন্দ্র কুমার বলেন, গ্রেফতার হওয়া এই পাঁচ আসামী তাদের দোষ স্বীকার করে নিয়েছে। এই পাঁচ আসামীর নাম যথাক্রমে  আশিষ, অনিল কুমার, মহেন্দ্র গুপ্ত, প্রভাত কুমার ও অমিত অবস্থি।এস পি কুমার বলেন, "পাঁচ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং তারা তাদের অপরাধ স্বীকার করেছে। কিন্তু ত্রিপাঠির স্ত্রীর এফআইআর অনুযায়ী, যারা তার স্বামীকে ছুরি মেরেছিল, সেই তালিকার কেউ এদের মধ্যে নেই। ২৫ শে নভেম্বর তিনি এফআইআরে বলেন দুজনের সাথে ত্রিপাঠির ধস্তাধস্তি শুরু হয়।"এস পি আরও বলেন, "যে দুজন ব্যাক্তির নাম এফআইআরে উল্লেখ করা হয়েছে সিসিটিভি ফুটেজে তাঁদের সন্ধান পাওয়া যায়নি এবং হত্যাস্থল থেকে লোকেশন ট্র্যাক করাও যায়নি।" পুলিশ সূত্রের খবর ত্রিপাঠি তার শত্রুদের ফাঁসানোর জন্যই এরকম একটা চিত্র নাট্য তৈরী করেন , কিন্তু যেই লোকদের তিনি ভাড়া করে এনেছিলেন তাদের মধ্যে একজনের  আঘাতেই দুর্ভাগ্যবশত তার প্রাণ যায় । কিন্তু বোধ গম হচ্ছেনা ,উত্তরপ্রদেশের পুলিশ এই সত্য উদ্ঘাটন করার পরেও মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ ১০ লক্ষ্য টাকা ক্ষতি পূরণ তার পরিবারকে কি উদ্দেশে দিলেন ? তাহলে কি মত বদল করবে উত্তরপ্রদেশের পুলিশ ?

No comments:

Post a Comment

loading...