Monday, 3 December 2018

ইভিএম ও সরকারি তথ্যের মধ্যে তফাৎ ৪৫টি ভোটের :মধ্যপ্রদেশ বিধানসভা ভোট

ওয়েব ডেস্ক ১লা ডিসেম্বর, ২০১৮: প্রথম থেকেই বিরোধীরা ইভিএম নিয়ে তাদের অসন্তোষ প্রকাশ করে আসছিল , সেটা যে কতটা যুক্তি সঙ্গত সেটা আস্তে আস্তে টের পাওয়া যাচ্ছে। প্রমাণিত না হলেও ইভিএম কারচুপি অভিযোগ আগেও ছিল এখনো আছে ,এবার পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচন পর্ব সম্পন্ন হবার আগেই ইভিএম নিয়ে একের পর এক অভিযোগ উঠতে শুরু করেছে। এবার মধ্যপ্রদেশের শাহদল জেলার বুধার শহরের জাতিপুর কেন্দ্রে ইভিএম নিয়ে গুরুতর অভিযোগ উঠলো।


জানা গেছে, ওই কেন্দ্রে মোট যা ভোট পড়েছে ইভিএম-এর হিসেব অনুসারে তার চেয়ে অনেক বেশী ভোট পড়েছে বলে দেখানো হয়েছে।জাতিপুর কেন্দ্রের ১২৪ নম্বর বুথে অফিসিয়াল রেজিস্ট্রার অনুসারে ভোট পড়েছে ৮১৯। যদিও ইভিএম-এর দেওয়া হিসেব অনুসারে ওই কেন্দ্রে ভোট পড়েছে ৮৬৪। এই ঘটনায় কংগ্রেস প্রার্থীর এজেন্টের পক্ষ থেকে প্রতিবাদ জানানো হয়েছে।জাতিপুর কেন্দ্রের রিটার্নিং অফিসার জি সি দেহারিয়া সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, ওই বুথে অফিসিয়াল রেজিস্টার এবং ইভিএম-এর হিসেবের মধ্যে ৪৫টি ভোটের ফারাক নজরে এসেছে। এই বিষয়ে ৩০ নভেম্বরের মধ্যেই নির্বাচন কমিশনকে রিপোর্ট পাঠানো হয়েছে।জেলা নির্বাচন আধিকারিকের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে – এই ঘটনায় নির্বাচনের ভোট গণনা নিয়ে কোনো সমস্যা হবে না। ওই বুথে পুনরায় নির্বাচনেরও কোনো সম্ভাবনা নেই। অতিরিক্ত ভোট বাদ দিয়েই গণনা করা সম্ভব।বিদ্যজনেদের একাংশের অভিমত পুঙ্খুনাপুঙ্খু তদন্ত হওয়া দরকার এবিষয়ে ।

No comments:

Post a Comment

loading...