Friday, 14 December 2018

যখন প্রতিশ্রুতি ভঙ্গের জন্য খারাপ ফল বিজেপির সেখানে গরুকে রাষ্ট্রমাটা করার প্রস্তাব এই বিজেপি শাসিত রাজ্যে

ওয়েব ডেস্ক ১৪ ই ডিসেম্বর ২০১৮ : দেশে হাজার হাজার  বেকার ঘুরে বেড়াচ্ছে , যাদের চাকরির কোনো বন্দোবস্ত এই সাড়ে ৪ বছরেও কিছু করতে পারেনি কেন্দ্র সরকার । কিন্তু বর্তমান পরিস্তিতিতে গুরুত্বহীন কাজে সময় নষ্ট করাটা হাল ফিলের ফ্যাশন হয়ে দাঁড়িয়েছে বিজেপি রাজ্যগুলিতে । উদাহরণ স্বরূপ হিমাচল প্রদেশ যারা বিধানসভায় গরুকে ‘‌রাষ্ট্রমাতা (জাতির জননী)’‌ করার প্রস্তাব পাশ করেছে। গত সেপ্টেম্বরে এই দাবিতে প্রথম সোচ্চার হয়েছিল বিজেপি শাসিত উত্তরাখণ্ড।


তাত্‍‌পর্যপূর্ণভাবে বিজেপির সমর্থন নিয়ে এই প্রস্তাব বিধানসভা কক্ষে পেশ করেন এক কংগ্রেস বিধায়ক। এই প্রস্তাব কেন্দ্রের কাছে পাঠাবে হিমাচলপ্রদেশ বিধানসভা। কংগ্রেস বিধায়ক অনিরুদ্ধ সিং–এর কথায়, ‘‌কোনও ধর্ম–বর্ণ–জাতির গণ্ডীর মধ্যে গরু পড়ে না। মানবজাতির প্রতি তার একটা বিশাল অবদান রয়েছে। উত্তরাখণ্ড ইতিমধ্যেই এই পদক্ষেপ করেছে। গরু যখন দুধ দেয় না, তখন তার কোনও জায়গা হয় না। তাই এই পদক্ষেপ অবিলম্বে করা দরকার।’‌ গরুর ওপর অত্যাচার ও গণপিটুনি রুখতে রাজ্যে নতুন আইন আনা প্রয়োজন বলেও দাবি করেন কংগ্রেস বিধায়ক। রাজ্যের পশুখাদ্য মন্ত্রী বীরেন্দ্র কানওয়ার জানিয়েছেন, জয়রাম ঠাকুরের সরকার ১.৫২ কোটি টাকা ব্যয় করে গরু সংরক্ষণ কেন্দ্র তৈরি করছে। সোলান ও কাংরায় হচ্ছে এই সংরক্ষণ কেন্দ্র। শুধুমাত্র গরু সংরক্ষণের জন্য রাজ্যে পৃথক গরু মন্ত্রকেরও দাবি করেছেন বিধায়করা। যেকোনো পশুর ওপর নির্যাতনই আইনত দণ্ডনীয় , সে বিষয়ে কোনো দ্বিমত নেই মানুষের । তবে এর থেকেও অনেক সঙ্গিন বিষয় রয়েছে যেগুলো সমাধান করা একান্ত জরুরি সে বিষয়ে ভাবলে নেটিজেনদের আশা বিজেপি এতো খারাপ ফল করবেনা যেটা সাম্প্রতিক ৫ রাজ্যের বিধানসভা ভোটে করেছে । 

No comments:

Post a Comment

loading...