Saturday, 15 December 2018

বিজেপি শাসন কালে এবার আমিষ, নিরামিষ ভাগাভাগি আইআইটি মাদ্রাসে,পড়ুন

ওয়েব ডেস্ক ১৫ই ডিসেম্বর ২০১৮ : এবার আইআইটি মাদ্রাসের মতো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেও কি সাম্প্রয়িকের ছোঁয়া লাগল ।ঘটনাটা যেদিকে গেছে সেটা মনে না হওয়ার কোনো কারণ দেখছেন না বিদ্যজনেদের একাংশ ।প্রসঙ্গত আমিষ এবং নিরামিশাষি পড়ু্য়াদের জন্য হাত ধোওয়ার বেসিন থেকে শুরু করে ঢোকার এবং বাইরে বেরোনোর পথ আলাদা আলাদা। এমনই পোস্টার দেখা গিয়েছে আইআইটি মাদ্রাজের একটি মেসে। আর সেটি নিয়েই ক্ষোভ প্রকাশ করেছে পড়ু্য়াদের একাংশ। সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে সেই পোস্টারের ছবিও। যদিও কর্তৃপক্ষের দাবি, ওই পোস্টারগুলি নিয়ে তদন্ত হবে, সত্যি প্রমাণিত হলে সেগুলি অবিলম্বে সরিয়ে ফেলা হবে।


জানা গিয়েছে, হিমালয়ান মেস কমপ্লেক্সের দ্বিতীয় তলায় যেখানে উত্তর ভারতের পড়ুয়ারা থাকেন, সেখানেই ওই পোস্টারগুলি লাগানো হয়েছে। তাতে বলা হয়েছে, হাত ধোওয়া এবং মেসে ঢোকা বা বেরোনোর পথ আমিষ ও নিরামিশাষি পড়ুয়াদের জন্য আলাদা আলাদা। যদিও আইআইটি মাদ্রাজ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, এরকম পোস্টার লাগানোর ব্যাপারে তাঁরা কিছুই জানেন না। অপরদিকে, পড়ুয়াদের একাংশের দাবি, গত বছর মে মাসে ‘‌বিফ ফেস্টিভ্যাল’‌–এর পর এভাবেই পড়ুয়াদের একাংশ আমিষ এবং নিরামিশাষি পড়ুয়াদের জন্য পৃথক ব্যবস্থার জন্য দাবি করেছিল। এমনকি ওই ‘‌বিফ ফেস্টিভ্যাল’–এ অংশ নেওয়ার জন্য একজন ছাত্রকে পিটিয়েছিল সংঘ পরিবারের সমর্থক কয়েকজন পড়ুয়া। আর নয়া এই ঘটনায় ফের চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে আইআইটি মাদ্রাজের অন্দরে। ইতিমধ্যেই  সোশ্যাল মিডিয়ায় এর বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন  নেটিজেনরা , তাদের দাবি এধনের বেদাভেদি এখনই বন্ধ  হওয়া উচিত ।কে কোন গেট দিয়ে প্রবেশ করবে সেটা একান্ত ব্যক্তিগত ব্যাপার এনিয়ে কথা বাড়ানো মানে মুর্খামির পরিচয় ।

No comments:

Post a Comment

loading...