Wednesday, 26 December 2018

এবার হিন্দু ধর্ম গুরুরাও বিজেপির ওপর চোটে লাল ,পড়ুন

ওয়েব ডেস্ক ২৬শে ডিসেম্বর ২০১৮: ভগবান হনুমানের জাত বিচার নিয়ে যে ভাবে উঠে পরে লেগেছে যোগীর মন্ত্রিসভার সদস্যরা তাতে তিতিবিরক্ত ধর্ম গুরুরা ।উত্তরপ্রদেশের হিন্দু ধর্মগুরু ও পুরোহিতেরা এক সুরে বললেন, ‘ভগবানের’ কোনও জাত নেই। বজরঙ্গবলীকে নিয়ে ‘অসম্মানজনক’ চর্চা বন্ধ হোক। লখনউয়ের হনুমান সেতু মন্দিরের প্রধান পুরোহিত ভগবান সিং বিশ্‌ত বলেছেন, ‘‘জল, মাটি, আকাশ, বাতাস, আগুনের কি জাত আছে? তা হলে কী করে ভগবানের জাত-ধর্ম বেঁধে দেওয়া সম্ভব? নেতারা যা করছেন, তাতে আমি ব্যথিত।’’


অযোধ্যার নির্মোহী আখড়ার মহন্ত রাম দাসের বক্তব্য, ‘‘নেতারা রাজনৈতিক ফায়দা তোলার জন্য এটা করতে পারেন না। ধর্মের গণ্ডি পেরিয়ে সমাজের সমস্ত মানুষ হনুমানের পুজো করেন। এই ধরনের মন্তব্য যাঁরা করছেন, তাঁদের বিরুদ্ধে কঠোরতম ব্যবস্থা নেওয়া হোক।’’ অযোধ্যার হনুমানগঢ়ী মন্দিরের মহন্ত রাজু দাসের অভিযোগ, কায়েমি স্বার্থে হনুমানের নাম টেনে আনা হচ্ছে। যাঁরা সেটা করছেন, তাঁদের শাস্তির দাবি তুলেছেন তিনিও।সব থেকে ভালো কথাটা বলেছেন মধ্যপ্রদেশের প্রাক্তন মন্ত্রী নামদেও দাস ত্যাগী ওরফে কম্পিউটর বাবা তিনি বলেন বিজেপি নাম বদল করতে ভীষণ ভালো বাসে তাই আমরা মধ্যে প্রদেশে বিজেপি সরকার থেকে কংগ্রেস সরকারে বদলে দিয়েছি ।

No comments:

Post a Comment

loading...