Monday, 3 December 2018

পূর্বসূরিদের মতো লোক দেখানো আর্তনাদ নয় , প্রতিবন্ধীদের জন্য প্রকল্প ঘোষণা করে, আবার জাত চেনালেন মমতা

ওয়েব ডেস্ক ১লা ডিসেম্বর, ২০১৮: তৃণমূল সরকার "আহা", "উহু" করার সরকার নয় , এই সরকার রীতিমতো মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে তাদের সমস্যাগুলো মেটায় । সোশ্যাল মিডিয়ায়  মানুষের এখন এরকমই মতামত যা তৃণমূলের সমালোচকদের চিন্তায় ফেলে দিতে পারে ।মনের কোনায়  এই প্রশ্নটাও উঁকি মারতে পারে, কি আবার করলেন মমতা? যার জন্য এতো জয়োধ্বনি ? মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যে সবার জন্য ভাবেন তার প্রমান আরো একবার পাওয়া গেল ।

মমতার পূর্বসূরিরা যাদের কথা কোনোদিন ভেবেছেন বলে মনে পড়েনা সেখানে বিশেষভাবে সক্ষম মানুষদের পাশে দাঁড়াতে মানবিক নামে একটি প্রকল্প শুরু করেছে মমতার সরকার । বছরের প্রথমদিকে ঘোষিত এই প্রকল্পে ৪০ শতাংশ প্রতিবন্ধকতা যুক্ত মানুষ প্রতি মাসে এক হাজার টাকা করে ভাতা পাবেন। মুখ্যমন্ত্রী টুইটে লেখেন, ‘‌দু’‌লাখ নাগরিক এই মানবিক প্রকল্প থেকে উপকৃত হবেন। প্রকল্পের ব্যয় বাবদ ২৫০ কোটি টাকা ধার্য করা হয়েছে।’‌ ১৯৯২ সাল থেকে প্রতিবন্ধীদের দাবি দাওয়ার বিষয় সচেতনতা তৈরি করতে ৩ ডিসেম্বর পালিত হয় প্রতিবন্ধী দিবস। এবারও বেশ কয়েকটি অনুষ্ঠান হচ্ছে কলকাতায়।কয়েকদিন আগে প্রতিবন্ধীদের একটি অনুষ্ঠানে গিয়ে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা আসানসোলের  বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়। তিনি যখন কথা বলছিলেন সেসময় এক ব্যক্তি বারবার সামনে দিয়ে যাতায়াত করছিলেন। সে সময় বাবুল তাঁকে বলেন, আপনার সমস্যাটা কি? একটা পা ভেঙে আপনাকে ক্র্যাচ উপহার দেব। পরে নিজের নিরাপত্তা কর্মীদের বাবুল বলেন, ‘‌ওই ব্যক্তি যদি আবার জায়গা পরিবর্তন করেন তাহলে একটা পা ভেঙে দেবেন আর লাথি মারবেন।’‌ বিদ্যজনেদের একাংশের অভিমত এটাই বিজেপির কালচার , মমতা যেখানে প্রতিবন্ধীদের পাশে থাকার কাজে নিজেকে সপেছেন  , সেখানে বিজেপি নেতা মন্ত্রীরা সুস্থ সবল মানুষদের প্রতিবন্ধী বানানোর কাজে ভাষণ দিচ্ছে , এরকম ও হয় ?

No comments:

Post a Comment

loading...