Thursday, 20 December 2018

নোটবন্দির জন্য সাধারণ মানুষের যে প্রাণ গিয়েছিল সেটা অবশেষে স্বীকার করল মোদী সরকার

ওয়েব ডেস্ক ২০ই ডিসেম্বর ২০১৮:অবশেষে চাপের মুখে নতি স্বীকার করতে বাধ্য হলো কেন্দ্র সরকার  ।ক্রমাগত বিরোধীরা যখন নোটবন্দির সমালোচনা করে যাচ্ছিল তখনও ভেঙে পড়ার কোনো লক্ষণ দেখা যায়নি মোদী সরকারের , কিন্তু যেহেতু মধ্যপ্রদেশ , ছত্তিসগড়  , রাজস্থান , বিজেপির হাতছাড়া হয়ে গেল  তখন বলতে বাধ্য হলো নোটবন্দিতে  মানুষের প্রাণ গেছে ।


সরকারের তরফ থেকে জানানো হয়েছে এই নোটবন্দির জন্য মারা গেছে ৪ জন এদের মধ্যে তিন জন ব্যাঙ্ক কর্মী আর একজন সাধারণ গ্রাহক ।রাজ্যসভায় একটি লিখিত প্রশ্নের জবাবে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি বলেন, ‘স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া জানিয়েছে, নোটবন্দির সময় তাদের তিন জন কর্মী মারা গিয়েছে। মৃত্যু হয়েছিল এক জন গ্রাহকের’।সংসদে প্রশ্ন ছিল, নোটবন্দির সময়ে টাকা বদলাতে গিয়ে মানসিক অবসাদ, চাপ, আতঙ্কে কত জনের মৃত্যু হয়েছে সরকার কি জানে? ক’জন ব্যাঙ্ক কর্মীই বা মারা গিয়েছেন? সরকার তা জানলে যেন সংসদকে জানায়। জেটলি জানিয়েছেন, স্টেট ব্যাঙ্ক ছাড়া আর কোনও রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক এমন দুর্ভাগ্যজনক অভিজ্ঞতার কথা জানায়নি। স্টেট ব্যাঙ্কের তিন কর্মী ও মৃত গ্রাহকের পরিবারকে মোট ৪৪ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়া হয়েছে। বিদ্যজনেদের একাংশের অভিমত তাও অরুন জেটলির মতো লোক বিজেপি সরকারের তরফ থেকে দোষ স্বীকার করার সাহস দেখিয়েছে , এই জায়গায় যদি কম্যুনিস্টরা থাকতো  তারা কখনোই তাদের দোষ স্বীকার করতনা  । যে রকম আজও তারা কংগ্রেসের তরফ থেকে সমর্থন তুলে নেওয়ার ঘটনাটাকে তাদের সঠিক সিদ্ধান্ত বলে মনে করেন যার  জন্য তাদের পশ্চিমবাংলা আর ত্রিপুরা থেকে  বিতাড়িত হতে হয়েছে । তার পরেও ! ভাবা যায় । তারা শুধু একটা জিনিস জানে "তাদের কোনো ভুল নেই। " তারা ভুল করতে পারেনা ।  এর জন্যই তো কমিউনিস্ট আজ বিলুপ্ত হতে বসেছে । 

No comments:

Post a Comment

loading...