Thursday, 27 December 2018

নাসিরুদ্দিন শাহ জানিয়ে দিলেন,যা মন্তব্য করেছেন তাতে তিনি একটুও অনুতপ্ত নন, সঙ্গে অভিযোগ করলেন বক্তব্য বিকৃতির

ওয়েব ডেস্ক ২৭শে ডিসেম্বর ২০১৮: মানুষের মনে দাগ কাটার মতো  অভিনয় করেছিলেন "এ ওয়েডনেসডে" চলচিত্রে ,নাসিরুদ্দিন শাহ । একজন সাধারণ মানুষ যিনি আতঙ্কবাদীদের যন্ত্রনায় নিজেই প্রতিশোধ নেওয়ার পরিকল্পনা তৈরী করে এবং সাফল্যও পায় । সেই ভূমিকাটা এখনো হয়তো ভুলতে পারেননি নাসিরুদ্দিন শাহ ।রুপোলি পর্দার সেই ডাকা বুক ভাবটা তার আসল জীবনেও নিয়ে আসলেন ।প্রসঙ্গত কিছুদিন আগে তাঁর ধর্ম ও ভারতীয় সমাজকে নিয়ে করা মন্তব্যকে ঘিরে গোটা দেশ জুড়ে বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছিল। কিন্তু নিজের বক্তব্যে অনড় থেকে নাসিরুদ্দিন বলেন, ‘‌আমি আমার জায়গায় স্থির রয়েছি।’‌ এছাড়া ইমরান খানের বক্তব্য নিয়েও এদিন মন্তব্য পেশ করেন ইমরান খান।
তিনি বলেন, ‘‌ইমরান খানের উচিত নিজের ঘরকে সামলানো। তারপর ভারতকে উনি জ্ঞান দিতে আসবেন।’‌অভিনেতা বলেন, ‘‌আমি যেটা বলেছি সেটা হুবহু প্রকাশিত হয়েছে। উপরন্তু যে কথাগুলি বলিনি সেগুলিও আমার মুখে বসিয়ে দেওয়া হয়েছে।’‌ সম্প্রতি এক পর্যটন কর্মীকে সাক্ষাতকার দিতে গিয়ে ৬৮ বছরের নাসিরুদ্দিন জানিয়েছিলেন যে তিনি নিজের সন্তানদের নিয়ে চিন্তায় রয়েছেন। যদি কোনও উন্মত্ত জনতা তাদের ঘিরে ধরে জিজ্ঞাসা করে যে তারা হিন্দু না মুসলিম, কি জবাব দেবে তারা?‌ তিনি তো এই ধর্মীয় শিক্ষায় সন্তানদের বড় করেননি। সাক্ষাতকারে তিনি এও জানান যে ভারতীয় সমাজে বিষ ছড়িয়ে পড়েছে। নাসিরুদ্দিনের এই মন্তব্যের পরই বিতর্ক চাড়া দিয়ে ওঠে।নাসিরুদ্দিন শাহ বলেন, ‘‌আমি মুসলিম বলে এই কথা বলেছি, যাঁরা আমায় এটা বলছেন তাঁদের উদ্দেশ্যে জানাই আমি ভারতে থেকেও ভয় পাচ্ছি। আমি কখনও এটা বলিনি বা বলতেও চাইনি। আমি ভয় পাচ্ছি এমন নয়, দেশে এমন কিছু মানুষ রয়েছে যাদের জন্য আমার ভয় হচ্ছে। এই ভয়টা তারা ছড়িয়ে দিতে চায়। কিন্তু এটা হোক আমি চাই না।’‌ ভারতের এই পরিস্থিতি দেখে তিনি রেগেও আছেন বলে জানান অভিনেতা। ‌ সারা জীবনে ভারত বর্ষকে এতো ভালো ভালো সিনেমা উপহার দেওয়ার কিছু সংখ্যকের উগ্রতার জন্য এতো অপমান কি প্রাপ্য ছিল নাসিরুদ্দিন শাহের ?প্রশ্নটা ট্রোলড হচ্ছে ।তবে নিজের মন্তব্যে  তিনি যে অনড় থাকবেন , আর বিনা যুদ্ধে উনি যে এক চুলও জমি ছাড়বেননা সেটা বোঝাই যাচ্ছে ।

No comments:

Post a Comment

loading...