Sunday, 23 December 2018

ভগবান হনুমান ক্রীড়াবিদ ছিলেন , নব তম সংযোজন যোগীর মন্ত্রীর

ওয়েব ডেস্ক ২৩শে ডিসেম্বর ২০১৮:নাটক করার একটা সীমা রেখা আছে কিন্তু উত্তরপ্রদেশের মন্ত্রীদের কোনো সীমারেখা আছে বলে মনে হয়না । জানা নেই , কোন স্বার্থ তাদের এখনো বাকি আছে যা চরিতার্থ করার জন্য এরকম নাটকের অংশ হতে তারা উঠে পরে লেগেছেন ।চক্ষু লজ্জার পর্দাটা আদেও ছিল কিনা সেটা নিয়ে গবেষণা করা যেতেই পারে ।প্রসঙ্গত  হনুমানকে ঠিক কে ছিলেন তা নিয়ে মন্তব্য অব্যাহত ।কেউ বলছেন, হনুমান আদিবাসি ছিলেন।


 উত্তরপ্রদেশে বিজেপির কাউন্সিলার বাক্কাল নবাব হনুমানকে মুসলিম বলে দাবি করেছিলেন। কেউ আবার তাঁকে জাঠ বলেও মনে করেন। এবার পালা উত্তরপ্রদেশের মন্ত্রী ও প্রাক্তন ক্রিকেটার চেতন চৌহানের। তিনি অবশ্য হনুমানের জাত বিচারের ঝুঁকি নিলেন না। তবে হনুমান ঠিক কী করতেন, তা নিয়ে এবার নতুন দাবি করে বসলেন চেতন।ভগবানের কোনও জাত-পাত হয় না। আমরোহাতে এক সভায় গিয়ে প্রথমে এমনই বলেছিলেন চেতন। তার পর বললেন, ”হনুমানজি আসলে ক্রীড়াবিদ ছিলেন। উনি কুস্তি লড়তেন। আপনারা দেখে থাকবেন, দেশের প্রায় সমস্ত কুস্তিগীর আখড়ায় নামার আগে ওনার পুজো করে। কুস্তিগীররা ওনাকে খুব মানে। আমিও ওনাকে খুব ভক্তি করি। উনি আমার কাছে ভগবান। আর ভগবানের কোনও জাতি হয় না। আমি ওনাকে কোনও নির্দিষ্ট জাতির বলে ভাগ করতে চাই না।” প্রসঙ্গত, আমরোহা থেকে দুই বার সাংসদ নির্বাচিত হয়েছেন চেতন চৌহান। বর্তমানে তিনি উত্তরপ্রদেশের ক্রীড়া ও যুবকল্যাণ দফতরের মন্ত্রী। চেতন চৌহান তার নিজের সময়ের স্বনামধন্য ক্রিকেটের ছিলেন , সে এ ধরণের উক্তি করবেন শ্রোতাদের মধ্যে কেউই হয়তো আশা করেননি , কিন্তু তাদের ঢোক গিলতে যে বাধ্যকরিয়েছে এই উক্তি সেটা সহজেই বোধগম্য করা যায় ।

No comments:

Post a Comment

loading...