Friday, 14 December 2018

এবার মালিয়ার হয়ে সাফাই গাইলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নিতিন গডকড়ি , এটাই বাকি ছিল

ওয়েব ডেস্ক ১৪ ই ডিসেম্বর ২০১৮ : একেই তো নীরব মোদী , মেহুল চোকসিরা ব্যাঙ্ক ঋণের টাকা  নিয়েই দেশ ছেড়ে পালিয়েছে ,দরকার ছিল কোনো কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর সাফাই গাওয়া ,আজ সেই ষোলো কোলাও পূর্ন হয়ে গেল ।অবশ্য নীরব মোদীদের ক্ষেত্রে নয় ,বিজয় মালিয়ার ক্ষেত্রে ।যা নিয়ে উত্তাল  ভারতীয় রাজনীতি । নিতিন গডকড়ি বলেই ফেললেন  বিজয় মালিয়া একবার মাত্র ঋণ খেলাপ করেছেন, তাই তাঁকে চোর বলা কখনও উচিত নয়।

জনগণের বিজয় মালিয়াকে 'চোর' বলে উল্লেখ করার এই মানসিকতা ঠিক নয়। ভারতীয় ব্যাঙ্ক থেকে প্রায় ৯০০০ কোটি টাকা ঋণ নিয়ে বিদেশে পালিয়ে যাওয়া প্রতারক বিজয় মালিয়া সম্পর্কে এমনই মন্তব্য করলেন বিজেপি নেতা তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নীতিন গড়কড়ি। গতকাল অর্থনীতি বিষয়ক এক শীর্ষ সম্মেলনে নীতিন গড়কড়ি বলেন, "গত ৪০ বছর ধরে মালিয়া নিয়মিত ঋণের সুদ মিটিয়েছেন। কিন্তু যখন উনি এভিয়েশন  সেক্টর-এ এলেন, বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হয়েছিলেন তিনি। হঠাৎ করে তখন তিনি চোর হয়ে গেলেন? যদি কোনো ব্যক্তি ৫০ বছর ধরে সুদ দিয়ে থাকেন এবং একবার তিনি ঋণ খেলাপ করেন, তাহলে কি তিনি প্রতারক হয়ে যান? এই মানসিকতা ঠিক নয়।"বিজয় মালিয়াকে সমর্থন করে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী আরও বলেন, "ব্যবসাতে ওঠা-নামা থাকেই।  বিশ্ববাজারে অর্থনীতিতে মন্দার কারণে যদি সার্বজনীন কিছু ভুল মেনে নেওয়া হয়, তাহলে যিনি এই সংক্রান্ত সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছে তাঁকে সমর্থন করা উচিত।"সম্মেলনে তিনি নীরব মোদীর প্রসঙ্গ তুলে বলেছেন, "যদি নীরব মোদী বা বিজয় মালিয়া প্রতারণা করে থাকে তাহলে তাঁদের জেলে পাঠানো হোক। কিন্তু যদি আমরা তাঁদের জালিয়াত হিসেবে চিহ্নিত করি তাহলে আমাদের অর্থনীতি এগোবে না।" বিদ্যজনেদের  একাংশের অভিমত মালিয়ার হয়ে সাফাইটা ভালোই গাইলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী , যদি এই ভাবেই চাকরির বন্দোবস্ত করতে পারতেন মানুষের জন্য তাহলে অনেকের কাছে বাহবা পেতেন । 

No comments:

Post a Comment

loading...