Thursday, 27 December 2018

এবার রামদেব বাবাও, মোদীর থেকে সরে গেলেন

ওয়েব ডেস্ক ২৭শে ডিসেম্বর ২০১৮: যত সময় যাচ্ছে নরেন্দ্র মোদীর ভরসার লোকগুলো একে একে সরে যেতে শুরু করেছে বিজেপির থেকে । দলের মধ্যেই অনেক বিধায়ক, সাংসদ কংগ্রেসে নাম লিখিয়েছেন ।আর রামদেব বাবার মতো লোক এবার বিজেপি থেকে সরে যেতে শুরু করলেন , যা নিঃসন্দেহে মোদীজির রক্তচাপ বৃদ্ধি করবে ।মঙ্গলবার তামিলনাড়ুর মাদুরাইয়ে সংবাদসংস্থার মুখোমুখি হয়ে রামদেব বলেন, ‘এই মুহূর্তে দেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতি অত্যন্ত জটিল। আগামীতে কে দেশের প্রধানমন্ত্রী হবেন বা দেশের নেতৃত্বভার কার হাতে থাকবে, তা আমাদের পক্ষে এখনই বলা সম্ভব নয়।’ পরবর্তী প্রধানমন্ত্রীর নাম না জানালেও গোটা পরিস্থিতি যে অত্যন্ত কৌতুহল উদ্দীপক, তা জানাতে ভোলেননি তিনি।

বিজেপির সঙ্গে ঘনিষ্ঠতার পাশাপাশি মোদির বড় সমর্থক হিসেবেও পরিচিত রামদেব। তাঁর মুখেই পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নরেন্দ্র মোদির নাম উচ্চারিত না হওয়ায় আলোড়ন পড়ে গিয়েছে রাজনৈতিক মহলে।অপরদিকে,আসন্ন নির্বাচনে নির্দিষ্ট কোনও ব্যক্তিকে সমর্থন বা কোনও রাজনৈতিক দলের বিরোধিতা করবেন না বলে সাফ জানিয়ে রামদেব বলেন, ‘আমি এই মুহূর্তে রাজনীতিতে মনোনিবেশ করছি না।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের কোনও রাজনৈতিক বা ধর্মীয় কর্মসূচি নেই। যোগ এবং বেদাভ্যাসের মধ্যে দিয়ে আমরা এক পবিত্র, আধ্যাত্মিক ভারত গড়ার কাজ করে চলেছি।’ তবে এই প্রথম নয়। এর আগে, গত সেপ্টেম্বর মাসে যোগ বিষয়ক এক অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়েও রাজনীতির দুনিয়া থেকে দূরত্ব রাখার কথা জানিয়েছিলেন রামদেব। লোকসভা নির্বাচনে তিনি বিজেপির হয়ে প্রচার করবেন কি না, বলে জানতে চান সাংবাদিকরা। জবাবে পাল্টা প্রশ্ন করেন তিনি। বলেন, ‘আমি কেন করব?’ যোগগুরু আরও বলেন, ‘আমি রাজনীতি থেকে সরে দাঁড়িয়েছি। আমি সব দলের সঙ্গেই রয়েছি। আবার কোনও দলের সঙ্গেই নেই।’ সদ্য সমাপ্ত পাঁচ রাজ্যের নির্বাচনে বিজেপির ভরাডুবির পর রামদেব বাবা ধীরে চলো নীতি যে নিয়েছেন সেটা বোঝাই যাচ্ছে ।তিনি আগে থেকে কাউকেই যে সমর্থন জানিয়ে তার দলের অবস্থানকে বেকায়দায় ফেলবেননা সেটা বজায় যাচ্ছে ।

No comments:

Post a Comment

loading...