Saturday, 29 December 2018

ভোট শেষ হতেই উল্টো পুরান , বিধি ভঙ্গের দোষে বিজেপির মুখপাত্র সম্বিত পাত্রের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা

ওয়েব ডেস্ক ২৯শে ডিসেম্বর ২০১৮: পূর্বপুরুষেরা একটা কথা সব সময় পরবর্তী প্রজন্মকে শিখিয়ে গেছেন  , সেটা হল , সময় থাকতে থাকতে সব কাজ করে নিতে হয় , নাহলে কষ্টের সীমা থাকেনা । কেউ ব্যাপারটা গম্ভীর ভাবে নেয় কেউ নেয়না যারা নেয়না তাদের পরিণতি সম্বিত পাত্রের মত হয়  । যদিও এ ব্যাপারে বিজেপির মুখপাত্র সম্বিত পাত্রের দিকে একমাত্র  আঙ্গুল তোলা ঠিক নয় , গোটা বিজেপি পার্টিটাই এর জন্য দায়ী ।
 আমজনতার অভিমত ,আজ মধ্যপ্রদেশে বিজেপি যদি মানুষের জন্য কাজ করত তাহলে তাদের বিরুদ্ধে এতো কথা উঠতোনা ,আর কংগ্রেসের কাছেও তাদের রাজ্য হারাতে হতনা ।আর সম্বিত পাত্রের মত লোকের বিরুদ্ধেও গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করার কেউ সাহস করতনা।প্রসঙ্গত  বিজেপির সর্বভারতীয় মুখপাত্র সম্বিত পাত্র এর বিরুদ্ধে  আচরণবিধি ভঙ্গের অভিযোগে  জামিনযোগ্য গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করল ভোপালের এক আদালত। অভিযোগে বলা হয়, ২৭ শে অক্টোবর ভোপালের এমপি নগর এলাকায় রাস্তার ধারে একটি সাংবাদিক বৈঠক করেছিলেন সম্বিত পাত্র। এরপরে কংগ্রেস, কমিশনের কাছে বিজেপির মুখপাত্র সহ বেশ কয়েকজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করে। উক্ত অভিযোগের ভিত্তিতে এমপি নগর থানায় এফআইআর দায়ের করে কমিশন। তাতে বলা হয়েছে, সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে অনুমতি না নিয়ে রাস্তা আটকে সাংবাদিক বৈঠক করাটা সম্পূর্ণ বিধি ভঙ্গের সামিল। কমিশনার আরো জানিয়েছিল সাংবাদিক বৈঠক করার জন্য দুপুর ১টা থেকে ৩ টের মধ্যে সময় চাওয়া হয়েছিল, কিন্তু তারা অনুমতি ছাড়াই বেলা ১২ টা  নাগাদ শুরু হয়,  যা বিধি ভঙ্গের সমান। কমিশনের এফআইআর-এ অভিযুক্ত হিসাবে প্রথমে সম্বিত পাত্রের নাম উল্লেখ করা হয়নি। তবে সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং অফিসারের কাছ থেকে রিপোর্ট পাওয়ার পর বিজেপির মুখ বিজেপির সর্বভারতীয় মুখপাত্রের  নাম এফআইআর-এ ঢোকানো হয়। কমিশনের দায়ের করা এফআইআর-এর ভিত্তিতে এমপি নগর থানার পুলিশ এই ঘটনায় মামলা রুজু করে তদন্ত শুরু করে। কেন্দ্রে যখন বিজেপি সরকার রয়েছে তখন শিবরাজ সিংহ চৌহান তার রাজ্যের জন্য কিছুই কি করতে পারতেননা ?পারতেন , কিন্তু করবার ইচ্ছেটাই চলে গিয়েছিল ।

No comments:

Post a Comment

loading...