Saturday, 26 January 2019

এবার কুম্ভ মেলায় স্নান করে রাজনীতিতে প্রবেশ করছেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধীও, কিন্তু কেন এই স্নান ?

ওয়েব ডেস্ক ২৬শে জানুয়ারি ২০১৯:নির্বাচনের বৈতরণী পেরোবার জন্য রাজনৈতিক ব্যাক্তিত্বরা কি না করে । স্থায়ী ভাবে পাঁচটা বছর কাটাবার জন্য যজ্ঞ করে মসনদে বসেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ।এবার হিন্দু ভোট পাওয়ার জন্য কি বলা সম্ভব নয় , তবে কুম্ভ মেলায় গিয়ে পূণ্য স্নান করে আনুষ্ঠানিক ভাবে সক্রিয়  রাজনীতিতে  প্রবেশ করছেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। কংগ্রেসের এই নয়া সাধারণ সম্পাদক  পূর্ব উত্তরপ্রদেশে সংগঠনের কাজ দেখভাল করবেন।  সূত্রের খবর অনুসারে  কুম্ভ মেলার পর্ব মিটিয়ে ৪ ফেব্রুয়ারি দলের দায়িত্ব নিতে চলেছেন প্রিয়াঙ্কা। একই সঙ্গে  শোনা  যাচ্ছে  লখনউতে  দাদা  কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীকে নিয়ে সাংবাদিক সম্মেলনও করবেন সদ্য সক্রিয় রাজনীতিতে আসা প্রিয়াঙ্কা। পরের মাসের ৪ তারিখ মৌনি অমবস্যা। সেদিন-ই কুম্ভ মেলার দ্বিতীয় শাহি স্নান।  শোনা গিয়েছে  প্রয়াগরাজে  গিয়ে স্নান করবেন প্রিয়াঙ্কা। আর সেদিন কোনও ভাবে কর্মসূচি বাতিল হলে  ১০ তারিখ  পর্যন্ত অপেক্ষা করা হবে বলে দাবি সংবাদ সংস্থার। ১০ তারিখ বসন্ত পঞ্চমী। সেদিন তৃতীয় শাহি স্নান।এই খবর প্রকাশ্যে  আসতেই বিভিন্ন মহল থেকে প্রিয়াঙ্কার মা সোনিয়া গান্ধীর কুম্ভ সফরের কথা বলা হচ্ছে। ২০০১ সালে কুম্ভ মেলায় গিয়েছিলেন সোনিয়া।
এ প্রসঙ্গে কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী  এবং সক্রিয় রাজনীতিতে  প্রবেশ করতে চলা বোন  প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে একযোগে  কড়া আক্রমণ করেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। তাঁর কটাক্ষ শূন্য যোগ শূন্য, শূন্যই হয়।  সংবাদ সংস্থাকে তিনি বলেন প্রিয়াঙ্কা এর আগেও রাজনীতিতে ছিলেন।২০১৪ সালে  উত্তরপ্রদেশে তিনি-ই কংগ্রেসকে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। সেবারও কংগ্রেস হেরেছিল, এবারও হারবে। প্রিয়াঙ্কার রাজনীতিতে প্রবেশের কোনও প্রভাব  বিজেপির  উপর পড়বে না।‘ লোকসভার স্পিকার সুমিত্রা মহাজনও প্রিয়াঙ্কা রাজনীতিতে প্রবেশ নিয়ে মন্তব্য করেন। তিনি বলেন,  ‘ প্রিয়াঙ্কা একজন ভাল মানুষ। কিন্তু তাঁর সক্রিয় রাজনীতিতে প্রবেশ থেকে বোঝা যায় রাহুল একা রাজনীতি করতে পারছেন না। তাই প্রিয়াঙ্কার সাহায্য চাইলেন। আমি কংগ্রেসের পারিবারিক রাজনীতি নিয়ে  কোনও কথা বলবো না। ওটা ওদের নিজেদের ব্যাপার। তবে আমি মনে করি  যোগ্য মানুষকে রাজনীতিতে এগিয়ে দেওয়াই শ্রেয়।' 

No comments:

Post a Comment

loading...