Saturday, 19 January 2019

ভারতের মসনদে বিজেপির এক্সপায়ারি শেষ হয়ে গেছে বলে হুঙ্কার দিলেন মমতা

ওয়েব ডেস্ক ১৯ই  জানুয়ারি ২০১৯:বাংলায় নিজের সরকার গঠন করার সময় তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন , বাংলা যা আজ ভাববে ভারত সেটা কাল ভাববে ।সেই কথাটি অক্ষরে অক্ষরে পালন করে বিজেপি বিরোধী সব রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বদের এক মঞ্চে নিয়ে আসলেন ।উদ্দেশ্য একটাই , বিজেপিকে উৎখাত করতে হবে ২০১৯ এর লোকসভা নির্বাচনে ।সেখানে তিনি বলেন স্বাধীনতা আন্দোলনে পথ দেখিয়েছিল বাংলা। যখনই কোনও বড় বিপদ এসেছে বাংলা পথ দেখিয়েছে। এবারও বাংলাই নেতৃত্ব দেবে। বিজেপিকে উৎখাত করতেই হবে।


 মমতা হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, ২০১৯ এ একটাই স্লোগান বদলে দাও। মোদি সরকারকে বদলে দাও। মোদি, অমিত শাহ নিজের দলের নেতাদেরও সম্মান করেন না। প্রয়োজনে তাঁদের ব্যবহার করেন। প্রয়োজন মিটে গেলে তাঁদের ছুড়ে ফেলে দেন। এখন বিপাকে পড়ে দলের সব নেতাদের একজোট হয়ে লড়াইয়ের কথা বলছেন তিনি। অথচ কয়েকদিন আগেও শুধু নিজেদের কথাই ভাবছিলেন তাঁরা। সবকিছুর যেমন একটা এক্সপায়ারি ডেট থাকে। মোদি সরকারেরও এক্সপায়ারি ডেট শেষ হয়ে গিয়েছে। এবার আর মানুষ তাঁদের ক্ষমতায় ফিরতে দেবেন না বলে ব্রিগেডের মঞ্চ থেকে রীতিমত হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তিনি। মমতা বলেছেন, যাঁদের তিনি ছাড়েননি, তাঁরা কেন মোদিকে ছাড়বেন। বদল করতেই হবে। এখনও মানুষ যদি বিজেপিকে ভোট দেন তাহলে ব্যাঙ্কে আর একটি টাকাও থাকবে না তাঁদের। সব টাকা তাঁরা লুঠ করে নিয়ে যাবেন। বিজেপির রথযাত্রাকে আক্রমণ করে মমতা বলেছেন, এতদিন জানতাম জগন্নাথের রথ হয়। এই প্রথম জানলাম বিজেপির রথ। সেটা আসলে পাঁচতারা হোটেল। রথযাত্রার নামে হিংসা ছড়ানো কিছুতেই তিনি বরদাস্ত করবেন না বলে জানিয়েছেন। লুঠের টাকায় ভোট করছে বিজেপি। একের পর এক সরকারি প্রকল্পের নামে দুর্নীতি চলছে। যে প্রকল্পগুলিতে রাজ্য সরকার টাকা দিচ্ছে সেগুলি নিজেদের ছবি দিয়ে প্রচার করছে কেন্দ্র। এরকম রাজনীতি আগে কখনও হয়নি বলে অভিযোগ তৃণমূল নেত্রীর। যে মোদির বিরুদ্ধে কথা বলছে তাঁকেই চোর বলা হচ্ছে। আজকের ঐতিহাসিক জনসভা নিঃসন্দেহে অমিত শাহ্দের রক্ত চাপ বাড়াবে ।

No comments:

Post a Comment

loading...